সোস্যাল মিডিয়াঃ অনলাইন মার্কেটিং এর এক অবিচ্ছেদ্য অংশ (জেনেসিস ব্লগস এ প্রকাশিত সোস্যাল মিডিয়া মার্কেটিং সংক্রান্ত সকল পোষ্ট)

Sohorab Sawpon

Social Media Marketing Trainee at Self Employed
ভালবাসি অনলাইনের বিভিন্ন খুঁটিনাটি সম্পর্কে জানতে আর সবার সাথে শেয়ার করতে। কারন শেয়ার মানেই আরো জানা আর নিজের ভুল শুধরে নতুন করে শুরু করা।
টিউন করেছেন Sohorab Sawpon | December 15, 2015 16:30 | পোস্টটি 2,469 বার দেখা হয়েছে

social-media-marketing

এক সময় যখন সোস্যাল মিডিয়া ছিল শুধু আমাদের ব্যাক্তিগত যোগাযোগের মাধ্যম। ফেসবুকের কথাই ভাবুন না, যখন শুধু স্ট্যাটাস বা মেসেজের মাধ্যমে যোগাযোগেই যার ব্যবহার সীমাবদ্ধ ছিল। কিন্তু কেউ কী ভাবতে পারত যে সোস্যাল মিডিয়াই হবে একসময় অনলাইন মার্কেটিং এর এক অবিচ্ছেদ্য অংশ? সোস্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে কী কী করা সম্ভব তা আগে জেনে নেয়া যাক তাহলে-

১। এফিলিয়েশনের মাধ্যমে আয়,

২। টিস্প্রিং এর মাধ্যমে আয়,

৩। এ্যাডসেন্সের মাধ্যমে আয়,

৪। ই-কমার্স ব্যবসা,

৫। ফাইভআর (Fiverr) এ সফলতা,

৬। গ্রাফিক রিভার বা থিমফরেস্টে সফলতা,

৭। লোকাল যে কোন ব্যবসা,

৮। ব্লগে ট্রাফিক বৃদ্ধি,

৯। এসইও-তে র‍্যাংকিং সহ আরো অনেক কিছু

তবে শুধু সোস্যাল মিডিয়ায় এনগেজমেন্ট বৃদ্ধি করলেই চলবেনা। তার সাথে মেনে চলতে হবে কিছু নিয়ম-কানুন। কিন্তু নিয়ম কানুন জানার জন্য দরকার সফলদের কাছে থেকে সঠিক গাইডলাইন। যারা এই সকল প্ল্যাটফর্মে কাজ করে সফলতা পেয়েছেন তাদের পূর্ণাঙ্গ গাইডলাইন পেতে এই লিখাটি পড়তে পারেনঃ

http://genesisblogs.com/tips-2/18843

সোস্যাল মিডিয়া কে বর্তমানে ব্যপক গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। একসময় ছিল শুধু এসইও করেই নিজের ওয়েবসাইটে ভিজিটর আনার ক্ষেত্রে যথেষ্ট। কিন্তু বর্তমানে শুধু ওয়েবসাইটে ভিজিটর নিয়ে আসাই যথেষ্ট নয়, নিজের ওয়েবসাইট বা ব্যবসাকে  টার্গেটেড ভিজিটরের সামনে উপস্থাপনের ক্ষেত্রে এক গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম সোস্যাল মিডিয়া। এই সম্পর্কে আরো কিছু পরামর্শ পেতে পারেন এখান থেকেঃ

http://genesisblogs.com/tips-2/6385

এখন জেনে নেয়া যাক কোন কোন জনপ্রিয় সোস্যাল মিডিয়াকে আপনার মার্কেটিং এর কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে-

  • ফেসবুক
  • টুইটার
  • পিনটারেস্ট
  • লিঙ্কডিন
  • রেডিট
  • স্টাম্বল আপন
  • গুগল প্লাস
  • ডেলিশিয়া
  • ইন্সটাগ্রাম সহ আরো বেশ কিছু

সোস্যাল মিডিয়া সাইট গুলো সম্পর্কে তো জানা হলো। তাহলে এই সোস্যাল সাইট গুলোতে মার্কেটিং সম্পর্কে কিছু জেনে নেয়া যাক-

 

Facebook-Marketing

ফেসবুকঃ বর্তমানে আমাদের জীবনের এক অবিচ্ছেদ্য অংশ হচ্ছে ফেসবুক। এখানে আপনি শুধু আপনার বন্ধু বা পরিবারের আপনজনের সাথে শুধু যোগাযোগ করতে পারবেন না, তার সাথে পাচ্ছেন ফেসবুকের সেপ্টেম্বর ২০১৫ এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী ১.০১ বিলিয়ন বা ১০১ কোটি দৈনিক এ্যাক্টিভ ব্যবহারকারীর এক সুবিশাল বাজার। এই সংক্রান্ত পরিসংখ্যান দেখতে এখানে ক্লিক করুনঃ

লিঙ্কঃ http://newsroom.fb.com/company-info

তাহলে নিশ্চই বুঝতে পারছেন সঠিক মার্কেটিং এর মাধ্যমে ফেসবুকে কী না করা সম্ভব। সবই তো বুঝলাম। কিন্তু ফেসবুকে সঠিক মার্কেটিং করে কিভাবে তাই তো জানা হলোনা। তাহলে দেরি না করে এই লিখাগুলো পড়ে ফেলুনঃ

লিঙ্কঃhttp://genesisblogs.com/tips-2/17963

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tutorial-2/638

যেখানে আপনি ফেসবুক মার্কেটিং এর যাবতীয় নির্দেশনা পেয়ে যাবেন।

ফেসবুক যে অনলাইন আয়ের এক বিশাল মাধ্যম। কিন্তু এই বিশাল মাধ্যমে সফলতার সাথে ব্যর্থতার হারও কম নয়। শুধু মার্কেটিং নয় পরিপূর্ণ গাইডলাইন নিয়ে যেতে পারে আমাদের সেই সফলতার কাংক্ষিত ঠিকানায়। তার খুঁটিনাটি সম্পর্কে জানার জন্য এই লিঙ্কে ক্লিক করুনঃ
http://genesisblogs.com/tips-2/6555

এছাড়াও ফেসবুকে নিজের পন্যের বা পেজের বিজ্ঞাপন দেয়াটা এক জরুরী অংশ হয়ে গেছে। তবে চাইলেও বিজ্ঞাপন দেয়া সম্ভব নয়। এছাড়া সঠিক নিয়ম না মেনে বিজ্ঞাপন দিলে শুধু টাকা নষ্ট ছাড়া আর কিছুই হতে পারেনা। ফেসবুকে আপনার পোষ্ট, পেজ প্রভৃতি কিভাবে প্রমোট করবেন তার সম্পর্কেও এক বিস্তর আলোচনা করা আছে নিচের লিঙ্কেঃ

http://genesisblogs.com/tips-2/18438

সব শেষে দাঁড়াচ্ছে, ফেসবুক মার্কেটিং এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে আমাদের ব্লগে বা ওয়েব সাইটে ভিজিটর নিয়ে আসা। কারণ, সবই করলাম কিন্তু ভিজিটর আসলোনা বা ভিজিটরকে উদ্দেশ্যহীন ভাবে আমার সাইটে নিয়ে আসলাম কিন্তু তার দ্বারা বেনিফিটেড হতে পারলাম না। তাহলে এত কষ্ট সব বৃথা। তাই ব্লগে বা ওয়েবসাইটে ভিজিটর নিয়ে আসার জন্য স্টেপ বাই স্টেপ গাইডলাইন পেতে নিচের লিঙ্ক থেকে দেখে নিতে পারেনঃ

http://genesisblogs.com/tips-2/18037

 

Twitter-Marketing

টুইটারঃ  মাসিক ৩২০ মিলিয়ন বা ৩ কোটি ২০ লাখ এ্যাক্টিভ ভিজিটরের এক সুবিশাল সোস্যাল মাধ্যম হচ্ছে টুইটার বিস্তারিত এখানেঃ

https://about.twitter.com/company

তাহলে নিশ্চই বুঝতে পারছেন এটা যেন তেন মার্কেট নয়। এখানে আপনি ১৪০ শব্দের মাধ্যমে আপনার মনের ভাব বলেন আর টুইট বলেন, তা প্রকাশ করতে পারবেন। মার্কেটিং এর জন্য আপনি টুইটারকে বাছাই করলে সেটা অবশ্যই ভুল কোন সিদ্ধান্ত হবেনা। কিন্তু এখানেও প্রয়োজন সঠিক গাইডলাইন। অর্থাৎ, আপনি টূইটার এ্যাকাউন্ট খুলে ফেলেই মার্কটিং শুরু করে দিলেন আর তাতে সফল হয়ে গেলেন তা কিন্তু ভাবলে ভুল ছাড়া আর কিছুই নয়। তাই এই সম্পর্কিত সঠিক গাইডলাইন পেতে এই লিঙ্ক গুলোতে ক্লিক করে কয়েকজন সফল মার্কেটারের লিখাগুলো ঝটপট পড়ে ফেলুন-
* সেরা টুইটার গাইডলাইনঃ

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tips-2/7649

এছাড়া টুইটার থেকে ভিজিটর নিয়ে আসার জন্য আরো কিছু গাইডলাইন ফলো করার প্রয়োজন আছে। কার্যকরী গাইডলাইন শুধু আপনার সাইটের ভিজিটর আনবে তাই নয়, সেই ভিজিটরদের পুনরায় আপনার ওয়েব সাইটে আনার এক সঠিক পথও দেখাবে। এই সম্পর্কিত আরো কিছু গাইডলাইন পেতে নিচের লিঙ্ক থেকে ঘুরে আসতে পারেনঃ

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tips-2/5384

 

pinterest_dental-marketing-graph

পিনটারেস্টঃ ১০ কোটি বলুন আর ১০০ মিলিয়ন যেটাই বলুন সোস্যাল সেক্টরে পিনটারেস্ট কিন্তু পিছিয়ে নেই। যেখানে রয়েছে ৮৫% মহিলা ব্যবহারকারী। আর যুক্তরাষ্ট্রের অনলাইন ব্যবহারকারী মহিলাদের মধ্যে প্রায় ৪২% ব্যবহার করেন পিনটারেস্ট। অপরদিকে যুক্তরাষ্ট্রের ৩০% অনলাইন ইউজার পিনটারেস্ট ব্যবহার করেন। তাই আপনার ব্যবসার পন্য যদি মহিলাদের সংশ্লিষ্ট হয়ে থাকে আর তা যদি যুক্তরাষ্ট্র কেন্দ্রিক হয়ে থাকে তাহলে নড়েচড়ে বসুন। এত বড় একটা সোস্যাল মিডিয়া সাইটকে অনেকেই ইগনোর করে চলেন। আসলে এই সম্পর্কে সঠিক প্রচারনা বা গাইডলাইনের অভাবেই অনেকের কাছে এত বড় মার্কেট অজানাই রয়ে গেছে।

পিনটারেস্ট ব্যবহার করে মার্কেটিং এ সর্বোচ্চ সফল হওয়ার টিপস গুলো পড়ে আসতে পারেন নিচের লিঙ্ক গুলো থেকে।
পর্ব-১:http://genesisblogs.com/tips-2/17457

পর্ব-২: http://genesisblogs.com/tips-2/17771

পর্ব-৩: http://genesisblogs.com/tutorial-2/17787

আর আপনি যদি পিনটারেস্ট সম্পর্কে একেবারেই অজ্ঞ হয়ে থাকেন। আপনার যদি একেবারেই শুরু থেকে গাইডলাইনের প্রয়োজন হয় অর্থাৎ একেবারেই শুরু থেকে বিস্তর জানার ইচ্ছা থাকে তাহলে এই লিখা গুলো পড়ে দেখতে পারেনঃ
পর্ব ১: http://genesisblogs.com/tutorial-2/18631

পর্ব ২: http://genesisblogs.com/tutorial-2/18738

পর্ব ৩: http://genesisblogs.com/tutorial-2/18799

এই সামাজিক মাধ্যম সম্পর্কে তো অনেক অজানাই জানা হলো। কিন্তু উপরের লিখা গুলো আপনার জানার ইচ্ছাকে আরো উসকে দিতে পারে। বিভিন্ন ওয়েবসাইটে আপনার অনেক ফ্রেন্ড রয়েছেন। তাঁদের খুঁজে বের করুন পিনটারেস্টে। এর ফলে আপনি তাদের আপনার ফলোয়ার হিসেবে পেয়েও যেতে পারেন। সেই সম্পর্কে জানুন নিচের লিঙ্ক থেকে।

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tips-2/3759

 

linkedinsuit

লিঙ্কডিনঃ আপনি নিজেকে যদি একজন প্রফেশনাল হিসেবে পরিচয় দিতে চান তাহলে লিঙ্কডিনের জুড়ি মেলা ভার। কারন এখানে রয়েছে প্রায় ২০০ এর অধিক দেশের ৪০০ মিলিয়ন বা ৪০ কোটি ব্যবহারকারীর এক বিশাল নেটওয়ার্ক। বিস্তারিত এই লিঙ্ক এঃ

https://press.linkedin.com/about-linkedin

যে কোন চাকুরি বা অনেক সময় ফ্রিল্যান্সারদের প্রফেশনাল প্রোফাইল দেখার জন্য লিঙ্কডিন প্রোফাইলের লিঙ্ক চাওয়া হয়। কারণ, এখান থেকেই একজন পেশাদার ব্যক্তির সম্পর্কে অনেক তথ্য পাওয়া সম্ভব। এছাড়াও নেটওয়ার্ক তৈরি বা নিজের পন্যের প্রচারের জন্য লিঙ্কডিনের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম। লিঙ্কডিন প্রোফাইল কিন্তু গতানুগতিক সোস্যাল মিডিয়ার প্রোফাইল তৈরির মত সহজ নয়। তাই এখানে একটা সুন্দর প্রোফাইল মানেই আপনার বা আপনার ব্যবসা সম্পর্কে এক সুন্দর পরিচয়। তাহলে আসুন জেনে নেই কীভাবে লিঙ্কডিনে একটা গোছানো প্রোফাইল তৈরি করতে হয়ঃ

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tips-2/2667

এই সম্পর্কিত আরো কিছু পাবেন এই লিঙ্ক এঃ

http://genesisblogs.com/tips-2/17998

এছাড়াও, লিঙ্কডিনে আপনার টার্গেটেড ক্লায়েন্ট খুঁজে বের করতে পারেন। টার্গেটেড ক্লায়েন্ট খুজে বের করতে অন্যান্য সোস্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মের মতই লিঙ্কডিনের গুরুত্ব অসীম। সেই সম্পর্কিত গাইডলাইন নিচের লিঙ্ক হতে পেয়ে যাবেন বলে আশা রাখি।
লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tutorial-2/17582

 

reddit-combo-1920-800x450

রেডিটঃ গতানুগতিক সোস্যাল সাইট নয় রেডিট। অনলাইন মার্কেটিং নিয়ে যারা কাজ করছেন তারা সকলেই হয়ত জানেন এই জনপ্রিয় সোস্যাল বুকমার্কিং সাইট সম্পর্কে। যার শুধু গত নভেম্বর ২০১৫ এর ইউনিক ভিজিটরের সংখ্যা ছিল প্রায় ২০ কোটি। ভাবা যায় সঠিক গাইডলাইন নিয়ে কী করা সম্ভব রেডিট দিয়ে? দেখুন এখান থেকেঃ

https://press.linkedin.com/about-linkedin

কিন্তু এখানে সফল হবার জন্য কিছু মূল মন্ত্র মেনে চলা অত্যাবশ্যকীয়। তবে অনেকেই লিখার শুরুতে ভাবতে পারেন “এ আর এমন কাজ কী? এর পূর্বে তো অনেকবার এখানে লিঙ্ক দিয়ে চলে এসেছি”। যদি তাই ভেবে থাকেন তাহলে আপনি ভুল করছেন। তাই জানার যেহেতু কোন শেষ নাই। সুতরাং এই লিখাটি রেডিট সম্পর্কে আপনার সমস্ত ভুল ধারণা পাল্টেও দিতে পারে।

লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/tips-2/7820

 

StumbleUpon

স্টাম্বল আপনঃ রেডিটের মত সোস্যাল বুকমার্কিং এবং ভোটিং সুবিধা সহ আরেকটি মাধ্যম হচ্ছে স্টাম্বল আপন। এখানে শুধু এই সুবিধাগুলোই নয়। এখানে লাইক, কমেন্ট, শেয়ারের মত সুবিধাও আছে। স্টাম্বল আপনে কেউ যদি আপনার পেজকে স্টাম্বল করে তখন তা স্টাম্বল আপনের তথ্য ভান্ডারে পৌছে যায়। এরপর কেউ যদি সেই বিষয়ে সার্চ করে তখন ঠিক তার সংরক্ষিত তথ্যই সার্চ কারীর সামনে উপস্থাপিত হয়। এভাবেই আপনার সাইটে ভিজিটর বৃদ্ধিতে স্টাম্বল আপনের ভূমিকা ব্যপক। এই সম্পর্কে সফল হবার জন্য ২ পর্বের একটি লিখা পড়ে দেখতে পারেন।
পর্ব ১: http://genesisblogs.com/tutorial-2/16650

পর্ব ২: http://genesisblogs.com/tutorial-2/16763

 

পরিশেষে বলতে চাচ্ছি, সোস্যাল মিডিয়ায় সফলতার পূর্বশর্ত প্রতিটা প্ল্যাটফর্ম সম্পর্কে ভাল ভাবে জানতে হবে। শুধু পরিশ্রম করে গেলেই হবেনা। তার সাথে প্রয়োজন সঠিক জ্ঞান আর পরিপূর্ণ গাইডলাইন। সোস্যাল মিডিয়া ক্যাম্পেইনে ভাল ফলাফল না পাবার কিছু কারণ নিয়ে লিখা এই আর্টিকেলটা পড়ে দেখতে পারেন http://genesisblogs.com/tutorial-2/7446

এই লিখায় সোস্যাল মিডিয়া সম্পর্কে জেনেসিস ব্লগস এ এই পর্যন্ত প্রকাশিত সকল গাইডলাইন শেয়ার করার চেষ্টা করেছি। এই সমস্ত গাইডলাইন আপনি অনুসরণ করলে সফলতা খুব সহজেই আসবে বলে আশা রাখি। সঠিক গাইডলাইন আর আপনার পরিশ্রম সোস্যাল মিডিয়া সেক্টরে খুব সহজেই আপনাকে উন্নতির পথ দেখাবে। ভাল থাকবেন।

  • জাকির হোসেন

    লেখাটা পড়ে অনেক ভালো লাগলো অনেক তথবহুল।

Lost Password?

সামাজিক লিঙ্কে

পোস্ট নির্বাচন করুন