Tumblr এ কিভাবে অ্যাকটিভ থাকবেন, টিপসগুলো শিখে নিন

Ashfaqur Adnan

I am Ashfaqur Rahman Adnan. I am working as a freelance journalist and News Presenter at SATV since it's beginning. I have more than 8 years of experiences in electronic media & broadcasting sector in Bangladesh. Reading and writing about various IT & Freelancing related articles and contents are my passion. I am also working as Admin/Editor in "Fish Ville - ভৈরবের তাজা মাছের সম্ভার" and "QUINN
Clothing Store". I am very much dynamic, friendly and work loving.
টিউন করেছেন Ashfaqur Adnan | April 1, 2015 03:03 | পোস্টটি 1,025 বার দেখা হয়েছে


বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় মাইক্রোব্লগিং সেবা প্রদানকারী যে কয়েকটি সোশ্যাল মিডিয়া সাইট  রয়েছে তাদের মধ্যে Tumblr অন্যতম। অর্থাৎ Tumblr এর মাধ্যমে আপনি সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সুবিধার পাশাপাশি ব্লগিং করার সুবিধাও পেতে পারেন। একে হাইব্রিড ব্লগও বলা যায়। জনপ্রিয় এসইও এক্সপার্টরা বলে থাকেন, অনলাইনে যারাই কাজ করেন, তাদের প্রত্যেকের জন্য এখানে অ্যাকটিভ থাকাটা অবশ্যই বাধ্যতামূলক। আপনি Tumblr ব্যবহার করতে চাচ্ছেন কিন্তু কিভাবে শুরু করবেন বুঝতে পারছেন না? এই সমস্যা থেকে মুক্তির জন্যই আমার আজকের এই প্রচেষ্টা।
চলুন তবে আমরা দেখে নিই Tumblr এ কাজ করতে হয় কিভাবে সেই ধাপগুলো।
>> Sign up:
অন্যান্য যে কোন  সোশ্যাল মিডিয়া সাইট  এর মতই Tumblr ব্যবহারের ক্ষেত্রে প্রথম ধাপ হচ্ছে Sign up করে নেওয়া। সেজন্য আপনাকে একটি user name সাথে আপনার blog এর url (“user name” dot tumblr.com) দিতে হবে। আপনি যেকোন সময় আপনার ব্লগের settings option এ গিয়ে user name পরিবর্তন করে নিতে পারবেন।
এবার Tumblr ব্যবহারের আরও কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে নজর দেবোঃ
১। পোস্টের ধরণঃ আপনি Tumblr এ জনপ্রিয় হওয়ার জন্য যে ধরনের পোস্ট দিতে পারেন তা হল –
• Text- Text হিসেবে আপনি দিতে পারেন আপনার কোন লেখা, hyperlink, video এবং HTML বিষয়ক কিছু উপকরণ।
• Photo- আপনি নিজের সংগ্রহের ঝুলিতে থাকা কোন ছবি অথবা web এ আছে এমন ছবির url এখানে post হিসেবে দিতে পারেন।
• Quote- এখানে ছোট কোন text কে Quote হিসেবে post করতে পারেন আপনি। যা থেকে আপনার পুরো লেখাটির বিষয়বস্তু সংক্ষেপে বোঝা যাবে ।

tumblr-post-types
• Link- Link হিসেবে যা post করবেন তাতে যেন আপনার website বা webpage এর বর্ণনা থাকে।
• Chat-আপনার followerদের সাথে আপনার এবং আপনি যাদেরকে following করছেন তাঁদের সাথে সংগঠিত গরুত্বপূর্ন chat বা কথোপকথন post হিসেবে দিতে পারেন।
• Audio- আপনি যেকোন mp3 file (হতে পারে music track বা podcast) এখাণে post হিসেবে দিতে পারেন যা Flash music player দিয়ে শোনা যায়। তবে এখানে একটি কথা খেয়াল রাখতে হবে যে আপনি সারাদিনে একটি audio postই দিতে পারবেন।
• Video- আপনি আপনার নিজের সংগৃহীত video অথবা YouTube বা Vimeo থেকে সংগৃহীত video পোস্ট হিসেবে দিতে পারেন।

২। Follow এবং Follower options:
Tumblr এ আপনার ব্লগ যারা অনুসরণ করবে তারাই Follower. আপনার Followerরা নির্দিষ্ট বিষয়ভিত্তিক post এর follow optionএ ক্লিক করার সাথে সাথে ঐ post টি তাঁদের Dashboard এ দেখা যায়। আবার একইভাবে আপনিও অন্যের postএ follow option ক্লিক করে Follower হয়ে একই সুবিধা উপভোগ করতে পারেন ।অন্যদিকে আপনি কারো post follow করতে না চাইলে block করে দিতে পারেন। আপনার post গুলোকে পুনরুজ্জীবিত করার মাধ্যম হিসেবে আপনি Follower বাড়াতে পারেন এতে করে আপনার জনপ্রিয়তাও বাড়বে।

৩। Like এবং Re-blog করবেন যেভাবে:
কোন tumblr যদি আপনার post share করতে চায় তাহলে সে আপনার postটিকে Re blog করবে এবং তাঁর followerরাও ঐ postটি তাঁদের Dashboardএ দেখতে পারবেন। Post reblog করতে postএর উপরে ডান কর্নারে ক্লিক করুন এরপর একটি ছোট মেন্যুবার পাবেন যাতে re blog buttonটি থাকবে আর এর মাধ্যমেই আপনি post re blog করতে পারবেন। Post re blog করতে না চাইলে Likeও করা যেতে পারে। এজন্য উপরের পদ্ধতিতে মেন্যুবারে গিয়ে Heart চিহ্নিত button এ ক্লিক করুন।
৪। Interest এর ভিত্তিতে Tag করুন:
আপনি যেসব বিষয়ে আগ্রহী বা interested সেগুলকে খুঁজে নিয়ে follow করতে search tag ব্যবহার করুন। এক্ষেত্রে আপনি আপনার Dashboardএর ডানপাশে থাকা “Track this tag” option টি ব্যবহার করতে পারেন।
৫। Comment করুন:

Temblr এ comment করার পদ্ধতি অন্যান্য ব্লগসাইটে comment করার মত নয়।Comment করার জন্য নিচের পদ্ধতি ব্যবহার করুন:
Account > Preferences settings > Customize your blog. এরপর community tab এ ক্লিক করুন এবং Replies option এর একটি অথবা দুইটি Tick box এ ক্লিক করুন।

৬। Submission এবং RSS Feeds:
Tumblr এর একটি ভিন্নতর বিষয় হচ্ছে এটি অন্য Blogger দেরকেও আপনার blogএ post submission এর সুবিধা দেয়।

এই সুবিধাটি পেতে আপনার Account এর Preferences sectionটি ব্যবহার করতে হবে। এছাড়াও আপনি RSS Feeds থেকেও blog এ পোস্ট দিতে পারেন।
৭। Facebook ও Twitterকে connect করার ক্ষেত্রে সতর্ক হোন:
আপনার Tumblr এর postগুলো Facebook ও Twitter accountএ শেয়ার করতে পারেন। Tumblrএ bu default আপনি এই সুবিধা পাবেন।তবে মাত্রাতিরিক্ত post আপনার Facebook ও Twitter account এর জন্য হুমকি হতে পারে। তাই এ ব্যাপারে সতর্ক হোন।

৮। পছন্দমত Background Colors দিন:                                        
Tumblr এ আপনি অনেক free theme পাবেন । এগুলোর মধ্য থেকে আপনার blogএর সাথে সামঞ্জস্যপুর্ন theme পছন্দ করুন। CSS coding না জানলেও আপনি সহজেই এ কাজটি করতে পারেন। আর এজন্য Appearance tab এ Preferences sectionটি ব্যবহার করুন।

৯। Post এর ধারাবাহিকতা রক্ষা গুরুত্বপুর্ন:                                      tumblr-dashboard comment
যেহেতু আপনার প্রতিটি post আপনার followerরা তাঁদের Dashboardএ দেখতে পারেন তাই তাদেরকে Feedback comment করার সময় দিন। আর অল্প সময়ের মধ্যেই বেশি post দিলে আপনার postগুলো কাংখিত গুরুত্ব হারাতে পারে বিষয়টি খেয়াল রাখা ভালো।

১০। আপনার Blogটি publish করুন:
আপনার Blogএ যথেষ্ট পরিমানে post থাকলে আপনি তা বই অথবা PDF formatএ publish করতে পারেন। এক্ষেত্রে আপনি আপনার accountএর settings এর “Feed Trick” set up করে নিয়ে কাজটি করতে পারেন।
১১। Message কে গুরুত্ব দিন:
আপনার Tumblr accountএর message optionটি আপনাকে প্রকাশের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। এখানে আপনি অন্যান্য tumblr ব্যবহারকারীদের কাছ থেকে বিভিন্ন প্রশ্ন ও মতামত পেতে পারেন। আপনার দেওয়া উত্তরগুলো আপনার blogএ post হবে এবং আপনার follower ও visitorরা তা দেখতে পাবে।
১২। Content এর ব্যাপারে সতর্ক হোন:
আপনার blogটি SEO friendly করতে ভালো লেখা, related ছবি এবং সে অনুযায়ী theme ব্যবহার করুন। Postএর সাথে সামঞ্জস্যপূর্ণ tag এর ব্যবহার আপনার post বা blogটিকে সহজে খুঁজে পেতে কার্যকর ভুমিকা রাখবে। আপনার সংগৃহীত contentএর ক্ষেত্রে তথ্যসুত্র উল্লেখ করুন। তথ্যসমৃদ্ধ, আকর্ষনীয়, সমসাময়িক post দিন দিনে কমপক্ষে একবার। নয়তো আপনার followerরা আপনাকে কিন্তু unfollowও করে দিতে পারে। সতর্ক থাকুন। সজাগ দৃষ্টি রাখুন।

অনেক সময় নিয়ে লেখাটি লিখলাম। নিজে বুঝে, শিখে ও ব্যবহার করে লিখতে হল তো। সবার উপকার হবে এবং ভালো লাগবে আশা করি। আর এতেই আমার সার্থকতা। পরবর্তীতে আরও নতুন কোন বিষয় নিয়ে আপনাদের সাথে শেয়ার করবো। পরম করুণাময় সবার মঙ্গল করুন।