যে ভাবে কার্টুন চরিত্রগুলো আঁকবেনঃ

টিউন করেছেন SHAMIMA | May 7, 2014 00:09 | পোস্টটি 1,479 বার দেখা হয়েছে

যে ভাবে কার্টুন চরিত্রগুলো আঁকবেনঃ


আপনি কার্টুন(বাঙ্গচিত্র) ভালবাসেন? আপনি কি শিখতে চান? কিভাবে আপনার প্রিয় কার্টুন চরিত্র গুলো আঁকতে হয় অথবা নিজে আঁকতে হয়। তাহলে এই নিবন্ধটি আপনার জন্য।

এই জন্যই ভাল কার্টুন চিত্র আঁকতে, আপনাকে মানব দেহের গঠন সম্পর্কে সুপরিচিত হতে হবে, এটি  বিকৃত করে, আপনি অবশ্যই  মজার কর্টুন চরিত্রগুলো আঁকতে পারবেনএছাড়া, এই কার্টুন চরিত্র গুলো চিহ্নিতকারী রেখা দ্বারা আঁকা হয়, এবং আঁকার ক্ষেত্রে বাস্তবের সব বিবরন গুলো সঠিক ভাবে থাকার প্রয়োজন নেই।

কিন্তু কার্টুন চরিত্রগুলোর গতিশীল মুখের অভিব্যক্তি আঁকা খুবই জটিল। তাই, যখন আমরা কার্টুন চরিত্রগুলো আঁকব তখন কয়েকটি সাধারণ নিয়ম অনুসরণ করা জরুরী। সর্ব প্রথম, চোখ, ভ্রু এবং ঠোঁট এবং আরো ভাবপূর্ণ অভিব্যক্তি । সর্ব -পরি, আমরা যখন এটিকে পর্দায় এবং ছবিতে দেখি, তখন নায়কের মানুষিক অবস্থা বহন করা গুরুত্ব পূর্ণ। কিন্তু, এবার ধাপে ধাপে কার্টুন চরিত্র গুলো শেখা যাক !

এর মাথা দিয়ে শুরু করা যাক. . কমিকস এ, বাঙ্গচিত্র এবং কার্টুন চরিত্র গুলোর  এর মাথা বিভিন্ন আকারের হতে পারে:এটি বৃত্তাকার, ডিম্বাকার, আয়তক্ষেত্রাকার, ত্রিভুজাকৃতির, এবং এমনকি  নলাকার হতে পারে।

মাথাকে দুই ভাগে ভাগ করুন,  এটি চোখ এবং চোয়াল। এবং কেন্দ্রীও রেখা চোখের মাঝ বরাবর ছেদ করে অন্যান্য মুখের বৈশিষ্ট্য স্থাপনের মাধ্যমে। নাক -ই  মুখের একটি কেন্দ্রিয় অংশ, মুখ সবসময় নাক হিসাবে একই দিকে ঘোরানো থাকে। চোখের লাইন নত বা উত্থাপিত হতে পারে।  রেখাটি নিম্নগামী করলে সহজেই বড় চোখ আঁকা সম্ভব, যা একটি তরুণ মহিলা চরিত্র আঁকতে  গুরুত্ব পূর্ণ ভুমিকা পালন করে। যদি চোখের রেখা আঁকা হওয়া যায় তাহলে, তখন চরিত্র গুলোর প্রতিকৃতির বিভিন্ন অবস্থান আঁকা কঠিন হয়ে পড়ে, অথবা এটা পরিবর্তন করা যাবে না।

একটি প্রতিকৃতি আঁকার সময়, অতিরিক্ত বিবরণ হিসাবে, চুল এবং মহিলাদের জন্য একটি টুপি, পুরুষদের জন্য গোঁফ এবং দাড়ি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকে। আপনাকে অবশ্যই মূল আকার থেকে আঁকা শুরু করতে হবে, এবং তারপর অতিরিক্ত বিবরণ যোগ করতে হবে।

 

কার্টুন

              প্রাথমিক আকার ব্যবহার করে যে ভাবে কার্টুন আকৃতির গুলো আঁকবেন।

চরিত্রের মুখের প্রতিকৃতিরঅভিব্যক্তি গুলোই সব চেয়ে কঠিন বিষয় কিন্তু এটাই বেশি মজাদার। যাই হোক, কার্টুন চরিত্রেরঅভিব্যক্তি গুলো একে জীবন্ত করে যা একে অসাধারন করে তোলে, তা ভালো হোক বা মন্দঃ

যখন অভিব্যক্তি বর্ণনা করা হয়, আপনার অবশ্যই মনে রাখতে হবে মুখের অভিব্যক্তি, কেবল চোখ এবং একটি মুখ দিয়ে তৈরি করা হয়। তুলনা মূলক ভাবে মাথার আঁকার এবং চুলের-কাটার সাথে। আয়নার সাহায্যে মুখের অভিব্যক্তি গুলো শিখুন।  আয়নার দেখে মুখের অভিব্যক্তি পরিবর্তন করতে চেষ্টা করুন, তার পর আপনি যা দেখছেন এবং যা মনে আছে তা আঁকার চেষ্টা করুন। পরীক্ষায় আপনি আপনার মুখের অন্যান্য অভিব্যক্তি তৈরি করবেন। সাধারন সরল রেখা ব্যবহার মূল প্রান্ত রেখা প্রদর্শন করতে।

 yrjgh

                           কার্টুনের মুখের অভিব্যক্তি আবেগ যে ভাবেআঁকবেন ।

মাথা এবং মুখ আঁকা শেষ হয়ে গেলে, শরীর আঁকুন। জীবন্ত কার্টুন চরিত্রের ঘাড় সবসময় চাক্ষুষরূপে সহজ হতে হবে এবং সঙ্গে সঙ্গে চোখ আঁকুনঃ

সাধারণত পাতলা লম্বা শরীর দেখানোর জন্য আয়তক্ষেত্র ব্যবহার করা হয়ে থাকে। একটা বৃত্তের মধ্য আরেকটি বৃত্ত ব্যবহার করে মোটা শরীর দেখানো হয়।  একটি নাশপাতি আকৃতির গঠন আরেকটি খুব দরকারী গঠন। গড়ে, আপনি তরুণ, বৃদ্ধ চরিত্র এবং মোটা চরিত্র আঁকতে পারেন। বিভিন্ন গঠন নিয়ে পরীক্ষা করুন, এবং আপনি আপনার কাছে আকর্ষণীয় কিছু খুজে পেতে পারেন।

 

আপনার কার্টুন চরিত্র গুলোর জন্য জামাকাপড় সম্পর্কে ভুলবেন না। শেষ মিনিটে পোশাক আঁকুনঃ

কাপড় পছন্দ করুন, চরিত্রের প্রকৃতির উপর নির্ভর করে। যখন  গতি দেখবেন তখন প্রধান রেখার গতি সম্পর্কে অবশ্যই ভুলবেন না। এই মেরুদণ্ড একটি সহায়ক রেখা যা শরীর কে ধারাবাহিক ভাবে হেলতে সাহায্য করে। এই রেখা আরও প্রানবন্ত এবং ভাবনাহীন ভঙ্গি তৈরি করতে সাহায্য করে।

কার্টুন চরিত্রের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ মুখে পরে – তা তার হাত। হাতের সাহায্যে, আপনি নায়কের প্রতিকৃতিতে প্রানবন্ততা আনতে পারেনঃ  

কার্টুন চরিত্রের হাত সত্যিকারের হাত থেকে ভিন্নি হয়ে থাকে তাদের পাঁচটির পরিবর্তে চারটি আঙ্গুল থাকে, এর কারণ এটি হাতকে বিভিন্ন অবস্থানে আঁকতে সাহায্য করে। এবং সব জোড়া এবং বিবরন আঁকার প্রয়োজন নেই কারণ এখানে বহিরবয়ব আঁকা প্রধান বিষয়। সাধারন আঁকা হাত গুলো সত্যিকারের হাত গুলো চেয়ে বেশি ফোলানো ধরনের। ভালো ভাবে হাত আঁকতে হলে নিজের হাতের উপর অধ্যায়ন করতে হবে। নিজের হাত দেখুন, অধ্যায়ন করুন প্রাকৃতিক নড়াচড়া সম্পর্কে এবং আঙ্গুলের অবস্থান গুলোও।

ভালো, এখন বাকি শুধু পা আঁকা এবং শরীরের সব অংশ আঁকা শেষঃ

পা সাধারণত দুটি সমান্তরাল রেখা বা টিউব যা সাধারণত বাঁকানো যায় এবং সোজা করা যায়। মনে রাখবেন যে, দুটি পায়ের মধ্য সঠিক দূরত্ব, শরীরের মধ্য পা ই আকারে সব থেকে বড়  এবং সাধারণভাবে, কম বাস্তবসম্মত এটা।

এখানে কার্টুন মানুষ আঁকার মূলনীতি বর্ণনা করা হয়েছে, পরীক্ষা নিরীক্ষা করে, আপনি আপনার নিজের প্রতিকৃতি তৈরি করতে পারেন। শুধু সাহসী হতে হবে।

আজকের মত এখানেই শেষ। পরবর্তীতে আবারও কোন নতুন আঁকার কৌশল নিয়ে দেখা হবে। সবাই ভালো থাকবেন।