কিভাবে আপনি আপনার প্রতিষ্ঠান এর প্রচার চালান?

Ishtiaque Nur

আমি মূলত একজন IT Expert, তবে একই সাথে Photography এবং গাছপালা লাগানোর প্রতিও আমার সমান আগ্রহ আর সেই আগ্রহ থেকেই এবং গ্রাম বাংলার কৃষক এবং শহরের মানুষকে এই বিষয়ে আগ্রহী করে তোলার জন্যে আমিwww.methopoth.com/ এ নিয়মিত লেখালেখি করি,একি সাথে আমি এটির Admin । আশাকরি আপনাদের সবার অনুপ্রেরনা এবং সমর্থন আমার সাথে থাকবে। ধন্যবাদ সবাইকে
টিউন করেছেন Ishtiaque Nur | February 2, 2014 00:48 | পোস্টটি 784 বার দেখা হয়েছে

কিভাবে আপনি আপনার প্রতিষ্ঠান এর প্রচার চালান?


কিভাবে আপনি আপনার প্রতিষ্ঠান এর প্রচার চালান?

 

১.Office

২.Some skilled staffs

৩.Phone /mobile /ই -মেইল ইত্যাদি

৪.পেপার / রেডিও এড/টিভি এড/ লিফলেট/ব্যানার ইত্যাদি

 

উপরে উল্লেখিত পদ্ধতি গুলো অবলম্বন করেই শত শত বছর ধরে লক্ষ লক্ষ কোম্পানি সফলতার সাথে বেবসা করে যাচ্ছে ।অর্থাৎ এই পদ্ধতি খুবই পরীক্ষিত একটি কার্যকর পদ্ধতি। তাহলে হঠাৎ করে আমার এই বিষয় টি নিয়ে আলোচনার কারণ কি? আসুন এটি নিয়ে আমরা কিছু আলোচনা করি।

 

আপনি একটি প্রতিষ্ঠান শুরু করলেই আপনার একটি অফিস দরকার হবে আর একটি অফিস সাজাতে এবং সেটি পরিচালনে অনেক স্টাফ এবং জিনিস পত্রের দরকার হবে আর আনুসঙ্গিক অন্যান্য অনেক খরচ তো থাকবেই। এগুলো শেষ হলেই আপনার যেটা করতে হবে সেটা হলো প্রতিষ্ঠান এর প্রসারে প্রচার। আর এ জন্যে অনেক টাকা খরচ করে পেপার এড , রেডিও,টিভি এড ,লিফলেট,ব্যানার ব্যবহার করলেন তবে একবার চিন্তা করে দেখেছেন কি যে পেপার এড আপনি এত টাকা দিয়ে দিচ্ছেন তা কত গুলো মানুষ দেখলো বা রেডিও তে শুনলো? লিফলেট এর কথা বাদ ই দিলাম,আমি নিজেই অভ্যাসবশত লিফলেট হাতে নেই এর পর হয়ত না পরেই ফেলে রাখি বা একবার দেখেই আর মনে থাকে না আর প্রয়োজন এর সময় মনে পরলেও আর খুঁজে পাই না।এর একটাই কারণ পেপার এড বা লিফলেট সংরক্ষণ করার ঝামেলা অনেক। আর রেডিও এড বা টিভি এড এর কথা মানুষ অনেক বেশি মনে রাখতে পারে এবং তাদের ফিডব্যাক ও এতে বেশি পাওয়া যায় তবে প্রতিদিন এই সব মাধ্যমে প্রচার চালানো অনেক ব্যায়বহুল এবং সবার এই সমর্থ থাকেও না।এক্ষেত্রে ব্যানার সমাধান হতে পারে।ব্যানার এর খরচ কম এবং অনেক দিন ব্যবহার করা যায় তবে এর মাধ্যমে সবজায়গায় পৌসান সম্ভব হয় না। তাহলে কি করা যায়? তার আগে প্রশ্ন হচ্ছে কেনই বা অন্য কিছু করা লাগবে? এত এত প্রতিষ্ঠান তো ভালো মত চলেই যাচ্ছে । ঠিক এখানেই আমার প্রশ্ন – আপনি একটি প্রতিষ্ঠান এর মালিক বা উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। আপনার লক্ষ্য হওয়া উচিত কিভাবে আপনার প্রতিষ্ঠান কে দিনে দিনে আরো ভালো অবস্থায় নিয়ে যাওয়া যায় অর্থাৎ একটি প্রতিষ্ঠান এর প্রসার সব সময় চলমান একটি প্রক্রিয়া। যারা এটা করবে না তাদের পক্ষে মার্কেট এ টিকে থাকা কষ্ট হয়ে যাবে। তাই বর্তমান দুনিয়ায় প্রতিনিয়ত নতুন নতুন পদ্ধতিতে মার্কেট রিসার্চ করা হয় এবং বিভিন্ন উপায় অবলম্বন করা হয় প্রতিষ্ঠান কে আরো ভালো অবস্থায় নিয়ে যাবার জন্যে । এই সব উপায় এর একটা অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে ওয়েব সাইট। অনেকে জানতে চাইবেন একটি ওয়েব সাইট কিভাবে কাজ করে,কিভাবে এটা করতে হয় , কারা এটা বানায় , এটা কে কিভাবে মানুষ এর কাছে পরিচিত করা যায় এমন আরো নানা প্রশ্ন … আপনাদের এই সব প্রশ্নের উত্তর দেবার জন্যে আমার এই লেখা। আশা করি আপনাদের সব প্রশ্নের উত্তর এতে আপনারা পেয়ে যাবেন

………………..

 

ওয়েব সাইট কি?সহজ ভাবে বললে এটা হচ্ছে আপনার প্রতিষ্ঠান এর অনলাইন বিজ্ঞাপন যা আপনি একবার বানালে সারা জীবন চলতে থাকবে শুধু মাত্র প্রতি বছর আপনাকে এর রিনিউ আর কিছু রক্ষনাবেক্ষণ কাজ বাবদ খরচ করতে হবে , সেটাও আর যাই হোক অন্যান্য বিজ্ঞাপন খরচ থেকে অনেক কম। আপনাকে এটা সবসময় আপনার গ্রাহক দের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করতে সাহায্য করবে,কারো কোনো তথ্য দরকার হলে সে আপনার অফিস এ না এসেই বা আপনার সাথে সরাসরি যোগাযোগ না করেই ওয়েব সাইট থেকে নিজেই সব জেনে নিতে পারবে। আপনার পণ্য বা সেবা এভাবে আপনি প্রচার করতে এবং বিক্রি করে বাড়তি উপার্জন করতে পারেন যা আপনার প্রতিষ্ঠান কে সাফল্য পেতে সাহায্য করবে ।

 

এখন নিশ্চয় আপনি জানতে চাইবেন যে ওয়েব সাইট এর এত উপকারিতা তা কিভাবে তৈরী করা যায়? একটি ওয়েব সাইট তৈরী করা সহজ নয়, এ জন্যে আপনাকে ওয়েব সাইট তৈরী করা জানতে হবে বা ওয়েব সাইট তৈরী করা জানেন এমন কোনো প্রতিষ্ঠান এর সহায়তা নিতে হবে। বাংলাদেশ এ এখন অনেক প্রতিষ্ঠান আছে যারা এধরনের কাজ করে থাকে। আপনি তাদের কে দিয়ে খুব কম খরচে ভালো মান এর ওয়েব সাইট করে নিতে পারেন। এমন কিছু প্রতিষ্ঠান এর ভেতর উল্লেখযোগ্য কিছু প্রতিষ্ঠান এর ওয়েব লিঙ্ক এখানে দেয়া হলো…

 

1.http://www.eicra.com/ 

2.http://www.creativeitweb.com/

3.http://www.abhworld.com/

4.http://web.com.bd/

5.http://zaman-it.com/

 

কিভাবে একটি প্রতিষ্ঠান এর মান বুঝবেন  : একটি প্রতিষ্ঠান এর মান বুঝার জন্যে তারা কত দিন যাবত কাজ করছে , তাদের করা কাজ এর নমুনা এবং সেই   কাজ গুলো’র মান কেমন এসব যাচাই করতে পারেন ,তবে আপনাকে এটা মনে রাখতে হবে যে আপনি কি চান সেটা আপনাকেই প্রথম ঠিক করে নিতে হবে এবং সেটা তাদের বুঝাতে  পারতে  হবে নাহলে হয়ত  তারা কাজ ঠিক মতই করে দিল তবে আপনার হয়ত তা ভালো লাগলো না বা আপনার চাহিদা পূরণ হলো না ।

 

সাইট এর নাম(ডোমেইন/domain) এবং হোস্টিং(hosting) : খুবই গুরুত্বপূর্ণ অংশ  ,আপনার  সাইট এর নাম এমন হওয়া  উচিত যাতে নাম থেকেই সাইট এর কাজের ব্যাপারে ধারণা পাওয়া  যায়।  এটা এস ই ও ‘র জন্যে খুব জরুরি (এস ই ও ‘র বিস্তারিত পরে আলোচনা করা হবে )

 

হোস্টিং:  হোস্টিং হচ্ছে একটা জায়গা যেখানে আপনি আপনার সাইট টাকে রাখবেন ,  হোস্টিং এর জায়গা কত টুকু হবে তা নির্ভর করে একটা   সাইট এর সাইজ এর উপর আর তার উপর নির্ভর করবে তার মুল্য।  হোস্টিং এর কিসু ওয়েব সাইট এর লিঙ্ক এখানে দেয়া হলো (সাধারণত যারা ওয়েব ডিজাইন  করে তারাই ডোমেইন/হোস্টিং এর সহায়তা দিয়ে থাকে )

 

1.http://www.paybdt.com/

2.http://www.eicra.com/

3. http://www.creativeitweb.com/

4. http://www.hostingbangladesh.com/

5. http://www.iglweb.com/web/

 

 

ওয়েব ডিজাইন : এটা ২ ভাগ এ বিভক্ত  ১.ওয়েব প্রোগ্রাম ২.ওয়েব ডিজাইন (এই দুটো বিষয়  নিয়ে  পরে কোনো এক সময় আলোচনা করা হবে , এটা নিয়ে এত ভাবনা চিন্তার কিছু  নাই, সেটা ভালো বুঝবে  যিনি বা যে প্রতিষ্ঠান কাজ করবে তারা   ) তবে আপনার যেটা   বুঝতে   হবে আপনার সাইট টা স্তাস্তিক হবে না ডাইনামিক।    স্তাস্তিক হচ্ছে  এমন একটা সাইট  যা কখনো পাল্টাবে না আর ডাইনামিক পাল্টাবে ,আপনি নিজেই সেটা করতে পারবেন বা একজন লোক রেখে করিয়ে নিতে পারবেন -তো সাধারণ ভাবে এই হচ্ছে  একটা ওয়েব সাইট এর প্রাথমিক পর্যায়।

 

To be continue