অনলাইন ব্র্যান্ডিং এবং বিল্ড আপ অথোরিটি (শেষ পর্ব)

Rumana Zaman Nupur

Hey, I am SEO expert & Graphic designer. Especially I am expert in Keyword research, Article writing, E-mail-marketing & Graphic designining. I am also interested to know & to learn new topics.
টিউন করেছেন Rumana Zaman Nupur | June 23, 2014 12:13 | পোস্টটি 369 বার দেখা হয়েছে

অনলাইন ব্র্যান্ডিং এবং বিল্ড আপ অথোরিটি (শেষ পর্ব)


অনলাইন ব্র্যান্ডিং এবং বিল্ড আপ অথোরিটির ক্ষেত্রে অনলাইন উপস্থিতির বিল্ড আপ এবং ব্লগিং এর ব্যবহার আমরা গত দুই পর্বে দেখেছি। যারা কোন কারনে গত দুই পর্বপড়তে পারেননি, তাদের জন্য লিঙ্কগুলো

১ম লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/technology/5200

২য় লিঙ্কঃ http://genesisblogs.com/technology/5443

সোশ্যাল মিডিয়া দিয়ে অনলাইন ব্র্যান্ডিং এবং বিল্ড আপ আথোরিটিরক্ষেত্রেকোন পন্থা ব্যবহার করতে পারি এবং যে বিষয়ে ফোকাস করতে হবে তার জন্য কিছু টিপস: সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে আপনার প্রোফাইল তৈরি করতে পারবেন খুব সহজেই এবং এটা দিয়ে কাজও করাযাবে।আপনার ব্র্যান্ডকে উন্নীত করা এবং আপনার ওয়েবসাইটে আপনার প্রোফাইলকে বিশ্বাসযোগ্য করতে আপনার ভিজিটরদের সাথে যোগাযোগ থাকতে হবে। নিম্নোক্ত টিপসগুলো আপনাকে উপরোক্তকাজ করতে সাহায্য করবে-

facebook

প্রতিটি প্রোফাইলকে সুসংগত ব্র্যান্ড ইমেজে পরিণত করুন-

আপনি কি কখনও একটি কোম্পানির সামাজিক প্রোফাইল সেটা কোম্পানীর কিনা তা নিশ্চিত না হয়ে দেখেন ? ব্র্যান্ডিং এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ অংশ হল, আপনার অনলাইনে সবখানে যেখানে আপনি আছেন, সেখানে যেনসুসঙ্গত ছবিটি থাকে। উদাহরণস্বরূপ:

  •   একটি বা একাধিক বন্ধুর এক্টিভিটির মাধ্যমে আপনার ফ্যান পেজ খুঁজুন এবং তারপর আপনার ব্লগে এটি অনুসরণ করেন এবং তারপর ওয়েবসাইটেও।
  • যাদেরকে তারা অনুসরণ করছেন তাদের থেকে কারো একটি টুইট দেখুন, আপনার টুইটার প্রোফাইলে যান এবং তারপর আপনার ওয়েবসাইটেও।
  •   আপনার ওয়েবসাইটে শুরু করুন, তারপর আপনার কোম্পানীর সঙ্গে ভিজিটর যুক্ত হয় কিনা দেখতে আপনার সামাজিক প্রোফাইলে যান।

আপনার প্রোফাইল অন্যদের খুঁজে পেতে সহায়তা-

প্রতিযোগিতামূলক বিশ্লেষণ এবং আরো অনেক কাজ, এর মধ্যে সবচাইতে গুরত্বপূর্ণ একটি ব্র্যান্ডের সামাজিক প্রোফাইলের জন্য অনুসন্ধান করা হয়। আপনার সামাজিক মিডিয়াতে উপস্থিতি আছে কিনা তা বুঝানোর জন্যঃ

  • আপনারওয়েবসাইটেসোশ্যালআইকনরাখুন –আপনারওয়েবসাইটেসামাজিকআইকন যুক্ত করে ভিজিটরদেরজানান যে আপনি সামাজিক মিডিয়ার সাথেও জড়িত, আপনার ভিজিটরএতে আকর্ষিত হবে। এটাযুক্ত করার সবচেয়ে সাধারণ জায়গাহেডার/ মেনু বার, সাইড বারবাফুটারে অন্তর্ভুক্ত করা। টয়োটা এর আইকন শুধুমাত্র 17 × 17 পিক্সেল।
  • আপনার সামাজিক লিংক যুক্ত করুন- আপনি নিয়মিত ইমেইল পাঠাতে পারেন কি? আপনার ইমেল স্বাক্ষরে সামাজিক লিঙ্ক যুক্ত করুন। আপনি নিউজলেটার প্রেরণ করেন?সেটার মাঝেও সামাজিক আইকন যোগ করুন।
  • আপনার প্রোফাইল অনুসন্ধান বন্ধুত্বপূর্ণ করুন – আপনারব্র্যান্ড নামআপনার সামাজিক প্রোফাইলের নাম এবং ইউজার নামের সাথে মেলে তা নিশ্চিত করা. আপনার ব্র্যান্ড নামের জন্য আপনার প্রোফাইল অভিব্যক্তি ভিজিটরদের মনোযোগ আকর্ষণ করতে পারে। সার্চ ইঞ্জিনের জন্যও কার্যকরভাবে নিখুত একটি প্রক্রিয়া।

আপনার অনুসরণকারী, ভক্ত, এবং ভিজিটরদের সঙ্গে এনগেজ-

আপনি সম্ভবত জানেন, আপডেটের জন্য প্রচুর পোস্ট করে একটি সক্রিয় অ্যাকাউন্ট বজায় রাখা গুরুত্বপূর্ণ, এবং এটি আপনার ব্র্যান্ড সম্পর্কে বিজ্ঞাপনের সবচেয়ে ভাল উপায়।তাহলে আপনি আপনার সামাজিক নেটওয়ার্কের মধ্যে সক্রিয় থাকার জন্য কাজ করা উচিতকি না বা কি করতে হবে তা কি জানেন? অবশ্যই, আপনার ভিজিটদের সাথে নিজেকে সামাজিকভাবে জড়িত করতে চান; আপনার ব্র্যান্ডকে যুক্ত করতে কিছু নেটওয়ার্ক রয়েছে-

twitter
টুইটার মার্কেটিং করার কিছু উপায়:

টুইটারনিজেই ব্যবহার করুন শুধু আপনার ব্র্যান্ডের জন্য অনুসন্ধান করতে এবং ভবিষ্যতে রেফারেন্স জন্য অনুসন্ধানটি সংরক্ষণ করুন. টুইটার ম্যানেজমেন্ট টুল ব্যবহার করে ক্রমাগত ব্র্যান্ড উল্লেখ দিয়ে আপডেট থাকতে হবে, যে কোনো সময় কেউ এটা ভাল বা খারাপ কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন করলে আপনাকে সাড়া দিতে হবে।

সময়ের সাথে সাথে এই জন্য আপনি বিশ্বাস লাভ করবেন,ফলশ্রুতিতে মানুষ আপনার কাছ থেকে প্রাপ্তির ভিত্তিতে এবং সম্ভবত তাদের সন্তুষ্টির উপর ভিত্তি করে তারা অন্যকে সুপারিশ করবে। টুইটারের শ্রেষ্ঠ অংশ হল যে আপনি যে কোন সময়, যে কোন কথোপকথনের মধ্যে থেকে বের হয়ে আসতে পারেন।

আপনার শিল্প সেরা কন্টেন্ট, যদিও যে কোন কিছু নিয়েমানুষ প্রায়ই একটি দ্বিতীয় মতামত দেখান, সেক্ষেত্রে অন্যান্য অথোরিটি আপনার শিল্প এবং শিল্প বিষয়ের উপর তাদের মতামত শেয়ার করবেনতাদেরকে খুঁজে বের করুন।এটার জন্য আরও প্রাসঙ্গিক ভিজিটর পাবেন।

ফেসবুক ফ্যান পেজঃ

আপনার বর্তমান সক্রিয় ভিজিটরদেরকে যুক্ত রাখতে এবং আপনার ব্র্যান্ডের জন্য নতুন ভক্ত আনতে ফ্যান পেজ ব্যবহার করতে পারেন।ভিজিটরদেরকে যুক্ত করার বিভিন্ন উপায় আছে:

  • ফেসবুকেআপনারফ্যানপেজআপডেটএর মাধ্যমে- আপনারফ্যানপেজআপডেটকরতে কোন স্বয়ংক্রিয় প্রোগ্রাম ব্যবহার না করে ফেসবুকে নিজে আপনার ফ্যান পেজ আপডেট করুন, শুরুতেহয়ত অতিরিক্ত সময় লাগবে, কিন্তু মানুষ আপনার পোস্টের সঙ্গে আকর্ষিত বা আপনার দেয়ালে সরাসরি পোস্টিং শুরু করবে এবং প্রতিক্রিয়া না পেয়ে তারাসম্ভবত ফিরে যাবে। কেউএকমুখী সম্প্রচার পছন্দ করেনা।
  •   আপডেট বিভিন্ন প্রকার করুন – শুধু লিংক পোস্ট বা প্রশ্ন করবেন না; কিছু ভিডিও আপডেট এবং ছবি যোগ করুন বিষয়বস্তু বিভিন্ন ধরনের করতে চেষ্টা করুন, কারণ মানুষ এবং তাদের মত বিভিন্ন ধরনের। আপনার কন্টেন্টে প্রত্যেককে যুক্ত করার চেষ্টা করতে ভুলবেন না।
  • ফেসবুক ফ্যান পেজকে গত আপডেটের জন্য ধন্যবাদ, আপনি আপনার ফ্যান পেজ হিসেবে ফেসবুক ব্যবহার করতে পারবেন; এই কমান্ডের সাহায্যে আপনি আপনার ফ্যান পেজের পরিবর্তে আপনার ব্যক্তিগত প্রোফাইল হিসাবে যে পৃষ্ঠাগুলি চান এবং তারপর আপনার ফ্যান পেজ হিসাবে সেগুলোর উপর মন্তব্য করতে পারেন। সরাসরি প্রতিযোগীদের না, কিন্তু যার শ্রোতা আপনার ব্র্যান্ড আগ্রহী হতে পারেসে পৃষ্ঠাগুলি খুঁজে নিতে পারেন।কারণ আপনি তাদের সক্রিয় পেতে চান।

লিঙ্কডইন প্রোফাইলঃ

আপনার ব্র্যান্ড লিঙ্কডইনের উপর নয়, তাহলে আপনি ভুল করছেন। লিঙ্কডইন আপনি এমনকি আপনার পণ্য, কাজ শুরু, এবং আপনার সর্বশেষ ব্লগ পোস্ট সহ আপনার কোম্পানীরভিজিটরদের অবস্থা আপডেট পাঠাতে পোস্ট করতে পারেন যেখানে একটি কোম্পানীর পেজও যোগ করতে পারবেন।তবে অনেক সময় প্রোফাইলের কার্যকলাপ মিথ্যাও হয়; সেরা ব্র্যান্ডিং এবং বিল্ড আপ অথোরিটির কিছু কার্যক্রম:

linkdin
• দল অংশগ্রহণ – লিঙ্কডইনে বিভিন্ন শিল্পেরপ্রচুরসক্রিয় গ্রুপ আছে। তাদের মধ্যে আপনার সম্ভাব্য ক্লায়েন্ট বেসও আছে এবং আলোচনায় সক্রিয় হয়ে এবং দরকারী কন্টেন্ট পোস্টিং শুরু করুন; তবে স্প্যামিং করবেন না।

  • প্রশ্নউত্তর – নিজেকে প্রফেশনাল রূপে গড়তে এর বিকল্প নেই। আপনার শিল্প একটি বড় পেশাদারী খ্যাতি এবং শক্তিশালী কর্তৃত্ব নির্মাণ করতে লিঙ্কডইনের উত্তর সবচাইতে উত্তম পন্থা। যারা অধিকাংশ প্রশ্নের উত্তর দেয় তাদেরকে প্রশাসন থেকে সপ্তাহের শীর্ষ বিশেষজ্ঞ হিসাবে উত্তরসহ’হোম পেজে’ দেখানো হয়।
  • রেকমেন্ডেশন -আপনার কোম্পানীর পেজ এবং আপনার কর্মীদের পেশাদার প্রোফাইল, উভয়কে রেকমেন্ড করতে পারেন। কেউ আপনার কোম্পানির পেজ ব্রাউজিং করে আপনার শীর্ষ কর্মীদের রেকমেন্ড দেখল, এতে আপনার সম্ভাব্য ক্লায়েন্ট আপনার ব্র্যান্ডের প্রতি আরও বেশি আত্মবিশ্বাসী হবে।

সামাজিক মিডিয়া ব্যবহার করে অনলাইন ব্র্যান্ডিং ও বিল্ডি আপ অথোরিটির কৌশল
সামাজিক মিডিয়া ব্যবহার করে আপনার অনলাইন উপস্থিতি ও বিল্ড আপ অথোরিটিতে আপনার ব্র্যান্ডিং এর কৌশল কি?আপনার নেটওয়ার্ক এবং কৌশল শেয়ার করতে অবশ্যই ভুলবেন না।