TopAllBrand ভেন্ডর একাউন্ট – প্রচলিত ইকমার্স সাইটের সেরা বিকল্প।

অপ্রস্তুত আযহার

মীর আযহার আলি। পেশায় একজন ফিন্যান্সিয়াল অ্যানালিস্ট। পাশাপাশি অর্থনীতি, বিনিয়োগ ও অন্যান্য বিষয়ে ব্লগে লেখালেখি করছেন। সাম্প্রতিক বিশ্বে ঘটে যাওয়া প্রত্যেকটি বিষয়ে তিনি আপডেট থাকতে পছন্দ করেন। তার বিভিন্ন লেখাগুলো পড়বে পারবেন জেনেসিসব্লগ, টেকটিউনস এবং সামহোয়ারইন ব্লগ থেকে।
টিউন করেছেন অপ্রস্তুত আযহার | March 27, 2017 00:18 | পোস্টটি 277 বার দেখা হয়েছে

TopAllBrand হচ্ছে একটি মাল্টি ভেন্ডর ইকমার্স প্ল্যাটফর্ম। এখানে যে কেউ এসে একটা ভেন্ডর একাউন্ট খুলে বিজনেস করতে পারছেন, পাশাপাশি যেকোনো ক্রেতা এসে পন্য কেনাকাটা করার সুযোগ পাচ্ছেন। অর্থাৎ বায়ার এবং সেলারদের মিট করিয়ে দিচ্ছে এমন একটি ইকমার্স সাইট হচ্ছে topallbrand.com. অনেকেই হয়ত একে ক্লাসিফাইড এড সাইট বিক্রয় ডট কম বা এখানেই এর মত ভাবছেন, আসলে তা নয়। একটা ক্লাসিফাইড এড সাইটে আপনি শুধু আপনার পন্য বিক্রির বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। কিন্তু টপ অল ব্র্যান্ড আপনাকে দিচ্ছে একটা পূর্ণ ইকমার্স সাইত বানানোর সুযোগ। অর্থাৎ আপনি এখানে একটা নিজের ভেন্ডর ওয়েবসাইট ক্রিয়েট করতে পারবেন যেখানে যে কেউ যেকোনো সময় এসে ভিজিট করে পন্য কিনতে পারবে। ভেন্ডর ওয়েবসাইট এর ব্যাপারটা একটু উদাহারন দিয়ে পরিস্কার করে দিচ্ছিঃ

ইকমার্স সাইটের বিকল্প সমাধান- ভেন্ডর একাউন্ট

ধরুন, topallbrand.com একটি ইকমার্স প্ল্যাটফর্ম যারা এই সাইটে নিজেরা কোন পন্য বিক্রি করে না, ভেন্ডরদের বিক্রি করার অপশন দিচ্ছে। ফলে যে কেউ এসে একটা ভেন্ডর একাউন্ট ওপেন করতে পারছে এখানে। তারা একাউন্ট করার পর তাদের কে topallbrand.com একটা নির্দিষ্ট স্থান দিচ্ছি তাদের সাইটের আন্ডারে বিজনেস করার। ধরুন যে একটি ভেন্ডর একাউন্ট এর নাম – বিগবাজার। তাহলে তার শপের নাম হবে- topallbrand.com/bigbazar. এই এড্রেসে গেলে যে কেউ ঐ মার্চেন্ট এর সাজানো পন্যগুলো দেখতে পাবে। ফলে এই এড্রেসটি ঐ মার্চেন্ট এর জন্য ওয়েবসাইটের বিকল্প হিসেবে কাজ করবে। নিশ্চয়ই চিন্তা করছেন– এতে করে ঐ  topallbrand.com এর লাভ কি? লাভ হচ্ছে – কমিশন। প্রত্যেক সেল থেকে ওরা একটা নির্দিষ্ট পরিমান কমিশন নেবে। তবে আঁতকে ওঠার কোন কারণ নেই, এই কমিশনের পরিমান একেবারেই নগণ্য।

TopAllBrand ভেন্ডর প্রোগ্রাম কি?

TopAllBrand বাংলাদেশের প্রথম মাল্টিভেন্ডর ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম। এরা শুরু মাত্র নিজস্ব পণ্য বিক্রয় করে না, পাশাপাশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের গুনগত মানসম্পন্ন পন্য সামগ্রী ক্রেতার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়া এদের ব্যবসার প্রধান উদ্দেশ্য। সেই লক্ষে তারা আয়োজন করেছে TopAllBrand ভেন্ডর প্রোগ্রাম। এই প্রোগ্রামের আওতায় তারা বাংলাদেশের সেরা ই-কমার্স ব্যবসায়ীদের একই ছাঁদের নিচে একত্রিত করেছে। একজন পণ্য বা সেবা বিক্রয়কারী ব্যক্তি তাদের ওয়েব প্ল্যাটফর্মে অতি সহজে একটি  ই-কমার্স শপ খুলতে পারবেন এবং তাদের নিয়মিত এক মিলিয়ন ক্রেতার নিকট নিজেদের পন্য বিক্রয় করতে পারবেন।

ই-কমার্স ব্যাবসায় আগ্রহী ব্যক্তিদের প্রধান দুটি অসুবিধা হল- একটি সুন্দর ই-কমার্স ওয়েবসাইট তৈরি ও মেইনটেইন করা এবং পণ্যের প্রচার প্রচারণা বৃদ্ধি করা। দু’টি সমস্যারই সেরা সমাধান TopAllBrand. এখানে আপনি সম্পূর্ণ বিনা খরচে একটি ভার্চুয়াল শপ তৈরি করতে পারবেন। আপনার শপে যে সমস্ত প্রোডাক্ট ডিসপ্লে করবেন, তা আমাদের ওয়েবসাইটের হোম পেইজে চলে আসবে এবং প্রোডাক্টটি যদি মান্সম্মত হয় তাহলে এদের প্রায় এক মিলিয়ন ভিজিটর থেকে  অনেকেই সেটি কিনতে আগ্রহী হবে!

এখনই রেজিস্ট্রেশন করুনঃ টপ অল ব্র্যান্ড ভেন্ডর রেজিস্ট্রেশন

কেন TopAllBrand এর ভেন্ডর হবেন?

TopAllBrand উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশের যে সমস্ত ই-কমার্স ব্যবসায়ীরা গুনগত মান সম্পন্ন পন্য বিক্রয় করছে, তাদের একই প্ল্যাটফর্মে একত্রিত করার। ফলে একদিকে যেমন আপনি বিনা খরচায় একটি নিজস্ব ই-কমার্স শপ মেইনটেইন করতে পারছেন, ঠিক তেমনি পণ্যের প্রচারের জন্য আপনাকে বাড়তি কোন পরিশ্রম করতে হচ্ছে না।

আপনি যদি ইতিমধ্যে একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইট স্থাপন করে থাকেন, তাহলে এদের প্ল্যাটফর্মে আপনার বিজনেসের আরও একটি উইং খোলার মাধ্যমে আপনার ব্যবসায়িক আওতা বৃদ্ধি পাবে।

আপনি যদি F-commerce বিজনেস বা ফেসবুক পেজের মাধ্যমে পণ্য কেনা বেচা করে থাকেন, তাহলে এদেদের ওয়েবসাইটে একটি ই-কমার্স শপ খুলে সেই শপের সাথে পেজের লিংক করে পণ্যের প্রচার বাড়াতে পারবেন।

আপনি যদি সাধারণ কোন দোকান বা বিপণীর মালিক হউন, তাহলে TopAllBrand আপনার জন্য খুলে দিতে পারে অনলাইনে বিজনেস করে বাড়তি মুনাফা অর্জনের অপার সম্ভাবনার দুয়ার।

TopAllBrand এর ভেন্ডর হওয়ার প্রক্রিয়া

দেখুন কত সহজে আপনিও হতে পারেন একটি ই-কমার্স ওয়েবসাইটের মালিকঃ

১. ভেন্ডর হওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করুন

এটি ভেন্ডর হওয়ার প্রথম ধাপ। এজন্য প্রথমে আপনাকে এদের ওয়েবসাইটের ভেন্ডর রেজিস্ট্রেশন পেইজে যেতে হবে। রেজিস্ট্রেশন ফর্ম ফিল আপ করে সাবমিট দিয়ে ভেরিফাইড হওয়ার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

২. শপে মানসম্মত প্রোডাক্ট এড করতে শুরু করুন

একটি ই-কমার্স শপ সেট আপ হয়ে যাওয়ার হয়ে যাওয়ার পরের ধাপ হচ্ছে শপে প্রোডাক্ট এড করা। প্রতিটি প্রোডাক্ট এড করার সময় আপনার পছন্দ মত প্রডাক্ট এর নাম, বর্ণনা, ফিচার, নমুনা ছবিসহ বিস্তারিত পোস্ট করতে পারবেন।

৩. ড্যাসবোর্ডে গিয়ে ই-কমার্স শপ সেট আপ করুন

আপনার ভেন্ডর রিকোয়েস্টটি ভেরিফাইড হয়ে যাওয়ার পর আপনাকে ইউজার নেইম ও পাসওয়ার্ড দিয়ে আমাদের ড্যাসবোর্ডে লগ ইন করতে হবে। এরপর আপনি প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে একটি শপ সেট করতে পারবেন।

৪. প্রয়োজনে ডিসকাউন্ট এড করুন এবং প্রচার করুন

আপনি যদি আপনার কোন প্রোডাক্ট অথবা শপের সমস্ত প্রডাক্টে ডিসকাউন্ট প্রদান করতে চান তাহলে আপনার জন্য কুপন এড করার ব্যবস্থা আছে। আপনি চাইলে এই কুপন লিংক বিলি করতে পারেন পণ্যের প্রচারের জন্য।

৫. আপনার শপের প্রয়োজনীয় শর্তাবলি সংযুক্ত করুন

আপনার শপ থেকে পন্য ক্রয়ের সময় ক্রেতাকে যে সকল শর্ত মানতে হবে তা উল্লেখ্য করুন। সেই সাথে পণ্য ক্রয়ের জন্য পেমেন্ট প্রক্রিয়া ও পণ্য সরবরাহ সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্যাবলি প্রদান করুন।

৬. পরিসংখ্যান দেখুন এবং টাকা উত্তোলন করুন

আপনি শপের সমস্ত অর্ডার ট্র্যাক করতে পারবেন এবং যেকোনো সময় বিক্রয়ের পরিসংখ্যান দেখতে পারবেন। বিক্রয়কৃত অর্থ আপনার ভেন্ডর একাউন্টে জমা থাকবে, যেকোনো সময় তা ব্যাংকে উইথড্র করতে পারবেন।

ক্রেতা কীভাবে পেমেন্ট করবেন এবং সেই অর্থ কোথায় জমা থাকবে?

TopAllBrand এই ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ স্বচ্ছতা বজায় রাখে। তাদের সাথে ভেন্ডর শপ চালু করার পর তাদের ফান্ড সংক্রান্ত ডাটাবেজে আপনার নামে একটি আলাদা হিসেব খোলা হবে। ক্রেতা প্রোডাক্ট এর জন্য পেমেন্ট করার সাথে সাথে তাদের ডাটাবেজে তা চলে যাবে এবং আপনার ব্যালেন্সে তা আপডেট করা হবে। আপনি চাইলে যেকোনো সময় এই অর্থ আপনার ব্যাংক একাউন্টে ট্রান্সফার করে নিতে পারবেন।

ভেন্ডর একাউন্ট করা, প্রোডাক্ট এড করা এবং বিক্রিতে কত খরচ হবে?

TopAllBrand প্ল্যাটফর্মে একটি ভেন্ডর শপ খোলা এবং শপে প্রোডাক্ট আপলোড করা সম্পূর্ণ ফ্রি! আপনি যেকোনো সময় শপে লগ ইন করতে পারবেন এবং যত খুশি প্রোডাক্ট এড করতে পারবেন। এই জন্য আপনাকে কোন প্রকার চার্জ দিতে হবে না। তবে প্রোডাক্ট বিক্রয়কালে আমাদের বিক্রয় মূল্যের উপর ৫% কমিশন কেটে রাখা হবে। ৫% কমিশন বাদে বাকি টাকা আপনার একাউন্ট ব্যালেন্সে যোগ হবে।

কোন কোন ধরণের প্রোডাক্ট আপনার ই-কমার্স শপে বিক্রি করতে পারবেন?

আপনি নিত্য প্রয়োজনীয় প্রায় যেকোনো পণ্য আমাদের ওয়েবসাইটের প্ল্যাটফর্মে বিক্রি করতে পারবেন। পুরুষ-মহিলা-বাচ্চাদের পোশাক, জুতো ও এক্সেসরিজ; কম্পিউটার, ক্যামেরা, মোবাইল ও যেকোনো ইলেক্ট্রনিক যন্ত্রপাতি; খেলাধুলার সামগ্রী, ফিটনেস আইটেম; স্ক্রিন কেয়ার, জুয়েলারি সহ আরও অনেক কিছুই বিক্রয় করা যাবে। তবে আপনি প্রোডাক্ট এড করার আগে আমাদের হোম পেইজের মেনুটা ভাল ভাবে ঘুরে দেখুন।

সর্বনিন্ম কত উইথড্র করা যায়? কতক্ষনে তা একাউন্টে জমা হবে?

বিপুল সংখ্যক ভেন্ডররা নিয়মিত উইথড্র রিকোয়েস্ট করে থাকেন। এর ফলে এদের প্রতিদিন প্রচুর উইথড্র রিকোয়েস্ট হ্যান্ডেল করতে হয়। তাই ওরা সর্বনিন্ম উইথড্র এর পরিমান ১০০০ টাকা ফিক্সড করেছে। যেকোনো উইথড্র রিকোয়েস্ট ওয়ার্কিং ডে তে সর্বোচ্চ ৪৮ ঘন্টার মধ্যে প্রসেস করা হয়। তবে আপনার যদি ইমার্জেন্সি উইথড্র করার প্রয়োজন হয় তাহলে  কারণ জানিয়ে টপ অল ব্র্যান্ড এর সাপোর্ট টিমের কাছে মেইল করুন।

আশাকরি পোষ্টটি আপনাদের উপকার করতে পেরেছে। অনেক ধন্যবাদ কস্ট করে পড়ার জন্য।

  • JIHAD

    ডেলিভারি কি আপনারা করবেন?