কম্পেটিটর এনালাইসিস শিখুন একদম হাতে কলম এবং আয় শুরু করুন আজকে থেকেই(১ম পর্ব)

ekram

বর্তমানে অনলাইন মার্কেটার হিসেবে কাজ করছি, ওয়েবডিজাইন এবং গ্রাফিকসটাও নিজের নেশা। আইটি প্রতিষ্ঠান, ন্যাশনাল আইটি ইন্সটিটিউট (https://www.facebook.com/nationalinst) এর সিইও । জেনেসিসব্লগসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন ।
টিউন করেছেন ekram | March 1, 2014 23:20 | পোস্টটি 538 বার দেখা হয়েছে

কম্পেটিটর এনালাইসিস শিখুন একদম হাতে কলম এবং আয় শুরু করুন আজকে থেকেই(১ম পর্ব)


সাধারণত যারা প্রফেশানালি এসইও এর কাজ করেন বা নিজের ওয়েবসাইটকে যারা এসইও করতে চাচ্ছেন তাদের জন্য কম্পেটিটর এনালাইসিজ বা কম্পেটিটর রিসার্চ সম্পর্কে ভাল ধারণা থাকাটা অনেক জরুরী। ঠিকমত কম্পেটিটর রিসার্চ করতে পারলে আপনার সাইটের প্রতিদ্বন্দী সাইটগুলো সম্পর্কে ভাল ধারণা পাবেন তাহলে আপনার ওয়েবসাইটের এসইও করাটা অনেক সহজ হয়ে যায় এবং র‍্যাংকিংয়ে উপরের দিকে থাকা আপনার সাইটের রিলেটেড অনেক সাইটকে টপকে আপনার সাইটকে খুব সহজে সার্চ ইঞ্জিনের টপে নিতে পারবেন। এবার আসুন দেখি কম্পেটিটর এনালাইসিস কি? কেন করবেন এবং কিভাবে করবেন কম্পেটিটর এনালাইসিস।

কম্পেটিটর এনালাইসিস কি?

 

EMBA_start_up_competition_996x446

সোজা কথায় বলতে গেলে কম্পেটিটর এনালাইসিস হচ্ছে নিজের প্রতিদ্বন্দীদের সম্পর্কে নিজের মধ্যে যথেষ্ট ভাল ধারণা তৈরি করতে পারা যাতে সেই ধারণাগুলোকে কাজে লাগিয়ে নিজের প্রস্তুতিপর্বটা ভালভাবে সেরে নিতে পারেন। এসইও এর ক্ষেত্রে কম্পেটিটর এনালাইসিস হচ্ছে আপনার ওয়েবসাইটের মোস্ট রিলেটেড ভাল সাইটগুলো সম্পর্কে খোজ খবর নেয়া, অর্থাৎ সেই সাইটগুলোতে ঢুকে সেগুলোতে কি মানের এসইও করা হয়েছে বা কিভাবে কাজ করা হয়েছে এগুলো সম্পর্কে রিসার্চ করা। এতে করে সেই সাইটগুলোর এসইও এর ব্যাপারে অনেক ভাল আইডিয়া পেয়ে যাবেন এবং আপনার সাইটের এসইও করতে গিয়ে তাদের দুর্বল দিকগুলোকে টার্নিং পয়েন্ট হিসেবে নিতে পারবেন। সেই অনুযায়ী যদি কাজ করতে পারেন তাদেরকে টপকে সার্চ রেজাল্টের টপে যাওয়া খুব একটা কঠিন হবে না আপনার জন্য।

 

কেন করবেন কম্পেটিটর এনালাইসিস?

সবাইতো এসইও করে নিজের ব্যবসার প্রসারের জন্য। সুতরাং প্রত্যেকেই চায়, তার ব্যবসার প্রসারে সর্বোচ্চ মেধা ব্যবহার করবে ‍অবশ্যই। আপনি যদি নিজের ব্যবসার উন্নতির জন্য মার্কেটিং শুরু করেন, তাহলে শুরুতেই আপনার প্রতিদন্দীদের ব্যপারে আইডিয়া নেয়া উচিত, প্রতিদন্দীদের কি কি দুর্বলতা আছে কিংবা কি কি শক্তি আছে, সেগুলো না জেনেই যদি আপনি মার্কেটিং করার জন্য নামেন, তাহলে আপনার লক্ষ্য পূরণ করতে পারবেননা, পারলেও অনেক সময় লেগে যাবে। আর যখন এই অ্যানালাইসিস রিপোর্ট বের করে কাজ শুরু করবেন, তখন আপনার কাজের পরিমান যেমন কমে যায়, তেমনি সফলতার সম্ভাবনাটুকু বেড়ে যাবে।

কিভাবে করবেন কম্পেটিটভ এনালাইসিস?

 

tanjin

কম্পিটিটর অ্যানালাইস কি এবং কেন করা হয় এ কাজ, সেটি বললাম। কিভাবে করত হয়, সেটি এবার জানানো হবে। তবে এটি ক্রিয়েটিভ আইটি আয়োজিত নারী স্কলারশীপপ্রাপ্ত তানজিনের একটি বিশেষ ক্লাশের উপর ভিত্তি করে যা জেনেছি, সেটির আলোকে এখানে উল্লেখ করব। তানজিনে অল্প কিছু পরিচয় দিয়ে তারপর শুরু করলে ভাল হবে। সে একজন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। নতুন বাচ্চা হওয়ার পর থেকে চাকুরী ছেড়ে ফ্রিল্যান্সিংকেই তার নিজের ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিয়েছে। এসইওর উপর আউটসোর্সিং কাজ করে।

তানজিনের ক্লাশ অনুসারে বলছি কম্পিটিটির অ্যানালাইসিস করার পদ্ধতিঃ

তানজিন ওডেস্কে পাওয়া তার একটি কাজের শুরু থেকে শেষ অবধি বর্ণনা করে পুরো কাজটি বুঝিয়েছে।

ওডেস্কে তার কাজটির বর্ণনা ছিলঃ

Need an seo expert for competitor analysis of 14 keyword. I need detailed research on on a xls sheet. Pls provide an example with your cover letter. So that I can understand how expert you are.  Happy Bidding !!!

কাজটি পাওয়ার জন্য তার কভার লেটার ছিলঃ

Hi,
I am Tanjin. I am new to odesk. But I have over 5 years of experience in On page and Off Page SEO, SMM, SEM & Linkbuilding.

SEO is my PASSION! I enjoy helping companies to receive high rankings for their sites. I have very good experience in competitor analysis. Pls see the attached format as an example. Hope you will like it. If you need any chages pls let me know.

Thanks and waiting for your positive response.

Regards From

Tanjin

কাজটি করার শুরুতেই কীওয়ার্ডটি (Cleaning Service NYC) দিয়ে গুগলে সার্চ করে যেই ওয়েবসাইটগুলো পাওয়া যায়, সেগুলোর মধ্যে ১ম থেকে ৫ম পযন্ত ওয়েবসাইটগুলোকে অ্যানালাইস করে রিপোর্ট বের করা হয়।

আমার একটি কীওয়ার্ডঃ Cleaning Service NYC

এই কীওয়ার্ড দিয়ে গুগলে সার্চ দিয়ে প্রথম ৫টি কোম্পানীর নাম খুজে পাবেন।

ধাপঃ ১: সবার প্রথমে একটি এক্সসেল ফাইল খুলুন। যেই যেই তথ্যগুলো আপনার সংগ্রহ করতে হবে। সেগুলোর জন্য আলাদা আলাদা কলাম তৈরি করুন। আমার প্রয়োজন অনুযায়ি আমি এখানে ১৭ টি কলাম তৈরি করেছি।

নামগুলো যথাক্রমে উল্লেখ করছি।

No, competitor url, Page PR, Domain PR, Alexa Rank, No of Indexed page, google places, google+ page, Google Review (No, status of review), keyword in title, keyword in url, keyword in Description, Keyword prominence, Domain age, content age

এক্সসেল ফাইল প্রস্তুত। এবার প্রতিটি কলামে বসানোর জন্য তথ্য সংগ্রহের পালা।

 

বাকি বিষয়গুলো শিখব পরের পর্বে। ভাল লাগলে কমেন্ট করে জানান, তাহলে পুরো লিখাটি শেষ করতে আগ্রহবোধ করব।

কমেন্ট জানাতে পারেন এখানে কিংবা  ফেসবুক গ্রুপে ( https://www.facebook.com/groups/creativeit/)

  • bappy

    Nice .. apner ay post ta khub impotent SEO worker der jonno