কোন DSLR ক্যামেরাটি কিনবেন

Ishtiaque Nur

আমি মূলত একজন IT Expert, তবে একই সাথে Photography এবং গাছপালা লাগানোর প্রতিও আমার সমান আগ্রহ আর সেই আগ্রহ থেকেই এবং গ্রাম বাংলার কৃষক এবং শহরের মানুষকে এই বিষয়ে আগ্রহী করে তোলার জন্যে আমিwww.methopoth.com/ এ নিয়মিত লেখালেখি করি,একি সাথে আমি এটির Admin । আশাকরি আপনাদের সবার অনুপ্রেরনা এবং সমর্থন আমার সাথে থাকবে। ধন্যবাদ সবাইকে
টিউন করেছেন Ishtiaque Nur | January 9, 2014 07:47 | পোস্টটি 2,864 বার দেখা হয়েছে

কোন DSLR ক্যামেরাটি কিনবেন


Canon 550D

Canon 550D

আজকাল DSLR ক্যামেরা অনেক বেশী সহজলভ্য হয়ে গেছে। ইদানীং সবার মধ্যে ফটোগ্রাফির শখটাও অনেক বেশী। কেউ আবার নিয়মিত ফটোগ্রাফি না করলেও শখের বসে একটা ভাল ক্যামেরা রাখতে চায়। বাংলাদেশেও নামী-দামী সব ব্য্রান্ডের DSLR পাওয়া যায় আজকাল। ফেসবুকের নিউজফিড চেক করলেই বোঝা যায় আমাদের দেশে উঠতি ফটোগ্রাফারের সংখ্যা নেহায়েত কম না আর তাছাড়া ওয়েডিং ফটোগ্রাফি এখন অনেক বেশী লাভজনক। নিয়মিত এক্সিবিশন আর প্রতিযোগিতাও হচ্ছে আজকাল। এই রিভিউটি মুলত উঠতি ফটোগ্রাফারদের জন্য যারা নতুন শুরু করতে চান তবে কোন ক্যামেরা টি আপনার জন্যে ভালো হবে তা নিয়া সিদ্ধান্ত নিতে পারসেন না তাদের জন্যে।

প্রফেশনাল ক্যামেরা কেনার ক্ষেত্রে মুলত কিছু বিষয় লক্ষ্য রাখতে হয় যেমন কত মেগাপিক্সেল,কামেরার দাম  ,কেনার সময় কোন লেন্সটি সাথে আছে এবং অন্যান্য লেন্সের দামগুলো কেমন হতে পারে, ইমেজ সেন্সর কত বড়, ISO রেঞ্জ কিরকম, স্পিড কেমন, ইউজার ইন্টারফেস এবং পেছনের LCD ডিসপ্লেটি কেমন, মেমরী কার্ড এর কোনটি লাগানো যায়, হালকা না ভারী, ব্যাটারীর লাইফ, শাটার স্পিড, কম আলোতে ছবি কেমন উঠে, ভিডিও করা যায় কিনা ইত্যাদি। নীচের ক্যামেরাগুলো মুলত এই সব ফিচারগুলো নিয়েই তৈরী করা হয়েছে আর বাংলাদেশের মার্কেটে বিশেষ করে ঢাকা এবং চট্টগ্রামে সহজলভ্য।

Canon 600D

Canon 600D

প্রায় ৫০,০০০ টাকা মুল্যের এই ক্যামেরাটি বের হবার পর থেকে বলা যায় Nikon এর অনেক নামী-দামী মডেলগুলোর বিক্রি কমিয়ে দিয়েছে এই ক্যামেরা। দামে সস্তা হবার কারনে এই ক্যামেরাটি যথেষ্ট জনপ্রিয়তা পেয়েছে  ফটোগ্রাফারদের কাছে। এটি Canon 550D এর আপগ্রেড। আর এই ক্যামেরার ভিডিও কোয়ালিটিও যথেষ্ট ভাল।  আপনিও ট্রাই করে দেখতে পারেন!

Canon 1100D / EOS Rebel T3:

Canon 1100D / EOS Rebel T3:

এই DSLR ক্যামেরাটি সম্ভবত এই মুহুর্তে সবচেয়ে সস্তা মার্কেটে কিন্তু কাজের দিক দিয়ে ক্যামেরাটির ফিচার অনেক ভাল। Wide 9 Point Auto Focus সিস্টেম, ISO Range 100 – 6400 আর HD ভিডিও ফিচার ক্যামেরাটিকে এই মুহুর্তে সবচেয়ে জনপ্রিয় করে তুলেছে। মুল্যঃ ৩৫,০০০ থেকে ৪০ হাজারের মধ্যে। কিট লেন্স সাথে থাকলেও একটা ৮,০০০ টাকা মুল্যের 50mm ১.৮ প্রাইম লেন্স কেনা যায়। প্রাইম লেন্স পোর্ট্রেট  ফটোগ্রাফির জন্য সেরা । তাছাড়া আপনার যদি  বাজেট থাকে, তাহলে আপনি কয়েক্ধরনের লেন্স কিনতে পারেন।

 

Nikon D3200

Nikon D3200

নিকন D3100/ D3200 :৩৫,০০০-৪৫০০০ টাকার মধ্যে পাওয়া যায় এই ক্যামেরা দুটি  আর ফিচার যথেষ্ট ভাল।এর মধ্যে Nikon D3200 ক্যামেরা টি  ২৪.২ মেগা পিস্কেলের। এই ক্যামেরাটি নিজে থেকেই ইমেজ ক্রপ করে ফেলে ছবির কম্পোজিশন আরও ভাল করার জন্য। এই ক্যামেরায় আছে Guide Mode যার কাজ হলো যে লোক জীবনে প্রফেশনাল ক্যামেরা ব্যবহার করেনি, তাকেও দেখিয়ে দিবে কিভাবে কি করতে হয়। অন্য ভাষায় বলা যায় – Easy Mode।

 

Canon EOS 100D

Canon EOS 100D

এটিও নতুন একটি মডেল। ১৮ মেগাপিক্সেল আর HD Video সুবিধা রয়েছে। একই রেঞ্জের অন্যান্য ক্যামেরার মত এই ক্যামেরাতেও সব ধরনের ফিচার আছে কিন্তু আকারে এই ক্যামেরাটি অনেক বেশী হালকা আর কম্প্যাক্ট। ৩ ইঞ্চির একটি LCD ডিসপ্লে আছে এই ক্যামেরায় আর আছে Canon এর বিখ্যাত Digic 5 ইমেজ প্রসেসর। Canon এর যে কোন EF বা EF-S লেন্স ব্যবহার করা যাবে এই ক্যামেরার সাথে। ISO রেঞ্জ ১০০-১২৮০০ এবং Expanded mode এ ISO ২৫৬০০ পর্যন্ত হতে পারে। আছে ড্রাইভ মোড এবং আরও অনেক নতুন নতুন ফিচার। এই ক্যামেরাটি ৫০,০০০ থেকে ৫৫,০০০ টাকার মধ্যে বাংলাদেশে পাওয়া যাবে।

Sony Alpha a37

Sony Alpha a37

১৬.১ মেগা পিক্সেলের এই ক্যামেরাটিতে আছে 15 Point Auto Focus আর অন্যান্য DSLR এ যা থাকে তার সবকিছু। সনির ইউজার ইন্টারফেস অনেক ভাল বিশেষ করে যারা নতুন করে ফটোগ্রাফি শিখতে চান। কিন্তু আমাদের দেশে সনির ক্যামেরাগুলো খুব একটা সহজলভ্য না বিশেষ করে, ক্যামেরার বডি পাওয়া গেলেও লেন্স পাওয়া অনেক বেশী দুস্কর। তাই প্রায় সময় কিট লেন্স হিসেবে যেটা পাওয়া যায় তাই হয়  একমাত্র ভরসা। মুল্য ৪০,০০০ – ৪৭,০০০ টাকার মধ্যে।

happiness

ছবি টি  Canon 550D এবং  Prime 85mm 1.8 দিয়ে তোলা হয়েছিলো

*** তথ্য গুলো সংগ্রহ করা এবং পন্যের দাম বাজার অনুযায়ী কম বেশী হতে পারে***