যে কারণে হচ্ছেন একা ও হারাচ্ছেন জনপ্রিয়তা

টিউন করেছেন mahtabshafi | April 24, 2015 05:18 | পোস্টটি 2,039 বার দেখা হয়েছে

হঠাৎ করে অফিসে আপনার জনপ্রিয়তা কমছে; কিন্তু কেন ? এর সমাধানই বা কী?

সকালে বাসা থেকে বের হয়েই বাস ট্রেনের ঝক্কিঝামেলা শেষে অফিসে ঢোকা। তারপর অফিসে ঝামেলা তো লেগেই আছে। অফিসে ঢুকতেই আপনার সহকর্মীরা এমন করে তাকাচ্ছেন আজকাল, মনে হচ্ছে আপনি কোনও ঘোরতর দোষে দোষি। অফিসের কাজের বাইরের সমস্ত আনন্দ ফুর্তি থেকেও আপনার নাম কাটা যাচ্ছে। কিন্তু কিছুতেই বুঝতে পারছেন না, আপনার দোষটা কোথায়। এর সমাধান কি আসুন তা জেনে নিই।

index

বন্ধু হয়ে উঠুন
আপনার ব্যক্তিগত জীবনে সমস্যা থাকতে পারে অনেক। সেই সব সমস্যার কথা আপনি বন্ধু হয়ে আপনার সহকর্মীদের বলতেই পারেন৷ কিন্তু খেয়াল রাখুন রোজ সেই সব সমস্যার কথা বলতে বলতে অন্যের সহ্যের সীমা না ছাড়িয়ে যান। মনে রাখবেন আপনার সহকর্মীর কথা শোনও খুব দরকার৷ তারও বন্ধু হয়ে উঠুন আপনি, কাজেও সাহায্য করুন, মাঝে মধ্যে দরকার পড়তে তার অনুপস্থিতিতে তার দায়িত্ব সামলে দিন, সহকর্মীর সাফল্যের জন্য ধন্যবাদ দিন, দেখবেন আপনার স্থান অফিসে অনেকটাই বেড়েছে।

ভাবুন নিজের কথা
একটি কোম্পানিতেই হয়তো আপনি অনেক দিন ধরেই কাজ করছেন, ফলে আপনার অভিজ্ঞতা অনেক। বছরে বছরে যারা নতুন কাজ করতে ঢুকছে, তাদের কাজের ছোট খাটো জিজ্ঞাসার সমাধান করাও আপনার স্বভাব। তাদের সাহায্য করা খুবই ভলো অভ্যাস, কিন্তু মনে করে দেখুন আপনি যখন কাজ শুরু করতেন আপনাকে তো সব শিখতে হয়েছিল নিজে নিজেই। তাই অতিরিক্ত হেল্পফুল হলে অনেকে সেটা ভলো ভাবে নাও নিতে পারেন, তাই নতুনদের নিজের মতো করে শিখতে দিন, তাদের ভবিষ্যৎ শক্তিশালী হবে, আপনিও কিছুটা কাজ মুক্ত হবেন।

কথা বলুন মেপে
আপনার অফিস হচ্ছে কাজের জায়গা, সেটার পরিবেশ ভালো রাখাও আপনার কাজ। অফিসের মিটিংয়ে বেশি কথা না বললেও চলে, কাজের কথাটুকু গুছিয়ে সংক্ষেপে বলুন। যখন আপনার সহকর্মীরা কাজে ফিরতে চাইছেন, তখন আপনার অতিরিক্ত কথা তাদের কাছে আপনাকে অপছন্দের করে তুলতে পারে। কাজের বাইরে অফিসে খুব বেশি কথা বলাটা বদ অভ্যাস। সহকর্মীদের নিয়ে বেশি গসিপ করাটাও অফিস কালচারের পরিপন্থী, তাই এড়িয়ে চলুন।

কাজে ফাঁকি দেবেন না
আপনি হয়তো কাজে আসছেন নিয়মিত, কিন্তু অফিসে এসে আপনার আলস্যের শেষ নেই৷ আপনার সহকর্মীরা যখন কাজের চাপে দম ফেলতে পারছেন না, তখন হয়তো আপনার চোখের সামনে চালানো রয়েছে কোনও কমপিউটার গেম বা আপনি ব্যাস্ত রয়েছেন আপনার স্মার্ট ফোনে। ফলে টিমে আপনার ভূমিকা কিন্তু ক্রমে কমে আসছে৷ এটা মোটেই ভালো চোখে দেখেন না আপনার সহকর্মীরা৷ কাজে আপনার অবদানের পরিমান বাড়ালে অফিসে আপনার উপস্থিত একদিকে যেমন জোরালো হবে, তেমনই আপনার প্রতি শ্রদ্ধাও বাড়বে আপনার সহকর্মীদের।