ব্যাকলিংক বা লিংক বিল্ডিং(ম্যানুয়াল অ্যান্ড অটো) স্টেপ বাই স্টেপ

টিউন করেছেন Rasel Ahmed Raju | June 9, 2017 14:18 | পোস্টটি 556 বার দেখা হয়েছে

Story Highlights

  • অটো ব্যাকলিংক সাইটের জন্য ক্ষতিকর হলেও কিছু আবুল বায়ার আছে ! যারা টাকা দিয়ে এসব ব্যাকলিংক কিনার জন্য অস্থির থাকে । ওদের চাহিদা মেটানোর জন্য নিচে কিছু টুলস দিলাম । এগুলির মাধ্যমে আপনি ব্যাকলিংক ক্রিয়েট করতে পারবেন ।

Related Articles


এই   আর্টিকেলটি  আমার এলইডিপি স্টুডেন্টদের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছিল ।
মার্কেট প্লেস গুলোতে লিংক বিল্ডিং এর অনেক কাজ পাওয়া যায়। অফ পেজ SEO এর ধাপ গুলোর মধ্যে লিংক বিল্ডং বা ব্যাক লিংক খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

প্রথমেই আসুন আগে জানি ব্যাকলিঙ্ক কি ?

ব্যাকলিংক এর মানে হলো একটি সাইট থেকে আপনার সাইটের জন্য লিংক পাওয়া।মনে করুন আপনার একটি ওয়েব সাইট আছে এবং সেই সাইটের লিংকটি আপনি অন্য একটি সাইটে রাখলেন।তাহলে আপনি আপনার সাইটের জন্য একটি ব্যাকলিংক পাবেন সেই সাইট থেকে যেখানে আপনি আপনার সাইটের লিংক দিয়েছিলেন। আপনার সাইট যদি A হয় এবং আপনি যে সাইটে আপনার সাইটের লিংকটি দিবেন সেটি যদি B হয় তাহলে ব্যাকলিং হিসাবে বলতে গেলে আপনি B সাইট থেকে একটি ব্যাকলিংক পেলেন।এভাবে আপনি আপনার সাইটের লিংক যতগুলো সাইটে দিবেন আপনি ততো ব্যাকলিংক পাবেন।আর সার্চ ইন্জিন অপটিমাজেশন এ এটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হিসাবে ধরা হয়।
অর্থ্যাৎ, আমরা এক কথায় বলতে পারি যে’অন্য সাইট থেকে আমরা আমাদের নিজেদের সাইটে যে ইনকামিং লিংক পাই তাকে ব্যাকলিংক বলে”

কেন এই ব্যাকলিংক ?

ব্যাকলিংক এর কথা মনে পড়লেই আমার মনে পড়ে আমাদের দেশের বড় বড় নেতাদের কথা,কি অবাক হচ্ছেন আমার কথা শুনে?আমি ব্যাকলিংক এর প্রয়োজনীয়তার কথা বললেই সবাকেই এই নেতাদের সাথে তুলনা করতে বলি।

কিভাবে?

লোকবল সবচেয়ে বড় বল।মনে করুন আপনার অনেক টাকা পয়সা আছে কিন্তু কাজ করার জন্য কোন লোকেই আপনি পেলেন না তাহলে কি টাকা পয়সার কোন মুল্য আছে? না নেই।সেভাবেই একজন প্রভাবশালী নেতাও কিন্তু একা কোন মূল্য নেই।দেখবেন যে সে সবসময় চায় তার অনেক অনেক সাঙ্গ-পাঙ্গ ( লোকবল থাকুক )। কেননা লোকবল যত বেশি হবে তার ক্ষমতার প্রভাবও ততো বেশি হবে।ফলে সে সব জায়গায় সে তার প্রভাব আরো বেশি করে খাটাতে পারবে।কিংবা যখন সে কোন কাজ করতে যাবে তখন যদি তার পক্ষেই সবাই ভোট বা সম্মতি দেয় তাহলে তার কাজ ও গ্রহনযোগ্যতাও অনেকাংশে বাড়বে।অতএবে সে বনে যাবে একজন পাওয়ার ফুল ম্যান হিসাবেসার্চ ইন্জিন এর কাছে ব্যাকলিংক ও তেমনি।একটি সাইটের গুরুত্ব ও গ্রহনযোগ্যতা বাড়াতে ব্যাকলিংক বড়ানোর কোন বিকল্পই হয় না।এক একটি ব্যাকলিংক আপনার জন্য ভোট স্বরূপ।এর জন্য সার্চ ইন্জিন সবসময় খুজে বেড়ায় কোন সাইটের ব্যাকলিংক বেশি।কেননা আপনি ও হয়তো কখনো চাইবেন না একজন অযোগ্য প্রার্থীকে একটি গুরুত্বপূর্ণ আসনে বসাতে।এর জন্য সার্চ ইন্জিন ও তাদের প্রথম পেজটির জন্য বেশি গুরুত্ব দেয় ব্যাকলিংককে। ( সজীব রহমান ভাইয়ার পোস্ট থেকে সাহায্য নিয়ে )
বিভিন্ন ভাবে লিংক বিল্ডিং বা ব্যাক লিংক তৈরি করা যায়।
যেমন: Blog Comment, Forum Posting, Guest Blogging etc.

ডুফলো ব্যাকলিংক কি?

ডুফলো ব্যাকলিংক হচ্ছে একটি সাধারন এইচটিএমএল লিংক। যার মাধ্যমে লিংকটি সরাসরি আপনার সাইটকে রেফার করবে এবং ব্লগ বা পোস্ট এই লিংকটিকে সমর্থন দেবে। ডুফলো ব্যাকলিংক হচ্ছে সবচেয়ে শক্তিশালী লিংক। আপনি কি ধরনের ব্লগের কাজ থেকে ডুফলো ব্যাকলিংক পাচ্ছেন তার উপরে নির্ভর করে আপনি কি ধরনের রেঙ্ক পাবেন।উদাহরণস্বরূপ, আমি একটি সাধারন এইচটিএমএল সোর্স কোডের লিংকের মাধ্যমে একটি সাইটের ডুফলো ব্যাকলিংক উপস্থাপন করছি।
<a href=”http://www.google.com/” target=”_blank” rel=”dofollow”>Google Website</a>

নো-ফলো ব্যাকলিংক কি?

নো-ফলো ব্যাকলিংক হচ্ছে এমন একধরনের লিংক যার মাধ্যমে ওয়েবসাইট সার্চ ইঞ্জিনকে তার প্রকাশিত ব্যাকলিংক কে ক্রাওল/ ইন্ডেক্স করতে নিষেধ করে ।। তবে এর মাধ্যমে কিছু ভিজিটর পেতে পারেন। বিশ্বের জনপ্রিয় সাইটগুলো নোফলো ব্যাকলিংক ব্যাবহার করে থাকে যেমন ফেসবুক, টুইটার, উইকিপিডিয়া ইত্যাদি। নোফলো ব্যাকলিংক এর সাথে rel=”nofollow” কোডটি যুক্ত থাকে যা সার্চ ইঞ্জিনকে ইন্ডেক্স করতে বাঁধা দেয়।উদাহরণস্বরূপ, আমি একটি সাধারন এইচটিএমএল সোর্স কোডের লিংকের মাধ্যমে একটি সাইটের নোফলো ব্যাকলিংক উপস্থাপন করছি।
<a href=”http://www.google.com/” target=”_blank” rel=”nofollow”>Google Website</a>
আপনি যে পদ্ধতিতেই ব্যাকলিংক করেন না কেন, মেইল এড্রেস লাগবে যখন তখন ……
আনলিমিটেড ইমেইল এড্রেস খুলে নিন যখন তখন
আপনি যেটাই করেন আপনার যখন তখন নিউ মেইল অ্যাড্রেস লাগতে পারে । তাই আমাদের এমন একটা মেইল খোলার সিস্টেম বের করতে হবে, যাতে সহজে মেইল খোলা যায় ।
কই পাই এমন মেইল ?
এই লিঙ্কের মাধ্যমে সহজে কোন প্রকার মোবাইল ভেরিফিকেশন ছাড়া মেইল খোলা যায় । শুধু একটি সিকিউরিটি কোয়েশ্চন আর এন্সার দিতে হয় ।

নিচে ব্যাক লিংক তৈরির ধাপ গুলো Step by Step আলোচনা করা হলো-

ব্লগ কমেন্টিং কি ?

ব্লগ কমেন্ট হলো কমেন্ট করা যায় এমন কোনো সাইটে গিয়ে কমেন্ট করা।যাঁরা এসইও নিয়ে কাজ করেন, তাঁদের কাছে ব্লগ কমেন্ট হচ্ছে অফ পেজ এসইও-এর একটি অংশ। এটি ব্যাকলিংক তৈরি করার একটি গ্রহণযোগ্য মাধ্যম। আপনি আপনার সাইটের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল রেখে অন্যান্য মানসম্মত ব্লগের আর্টিকেলে কমেন্টের মাধ্যমে আপনার সাইটের জন্য ব্যাকলিংক তৈরি করতে পারেন। আপনি ব্লগ কমেন্টের মাধ্যমে খুব সহজেই অন্য একটি সাইটের সঙ্গে কানেকশন তৈরি করতে পারবেন এবং আপনার সাইটের ব্যাকলিংকের সংখ্যা বাড়াতে পারবেন।

কীভাবে একটি ভালো ব্লগ খুঁজে বের করবেন ব্লগ কমেন্টিংয়ের জন্য?

প্রথমেই আপনাকে যে কাজটি করতে হবে তা হচ্ছে, একটি ভালো মানের ব্লগ খুঁজে বের করা। ভালো মানের ব্লগ বলতে :
  • সক্রিয় ব্লগ হতে হবে।
  • জনপ্রিয় হতে হবে।
  • ভালো মানের কিছু লেখক সেখানে থাকতে হবে।
  • ব্লগের পেজ র‌্যাংক ভালো হতে হবে।
  • যদি ডুফলো হয়, তাহলে অনেক ভালো। তবে উপরোক্ত গুণাবলি থাকলে নোফলো করতে পারেন।
আপনি গুগল থেকে সার্চ করে ব্লগগুলো খুঁজে বের করবেন। এ ক্ষেত্রে আপনি এসব কমান্ড ব্যবহার করতে পারেন সহজে সার্চ করার জন্য।
  • site:.com inurl:blog “niche” “leave a comment”
  • “Add comment” Your Keywords
  • “Post comment” Your Keywords
  • “Write comment” Your Keywords
  • Your Keywords “leave a comment” / “leave comment”
উপরের সিস্টেম কঠিন মনে হলে নিচের টুল ইউজ করতে পারেন
  1. http://linksearching.com/

  2. http://dropmylink.com/

2500+ do-follow commentluv enable bloglist
এখন আপনি আপনার কাঙ্খিত ক্যাটাগরি বা টপিক বা নিস এর সঙ্গে সম্পর্কিত সাইট পেলেন , কিন্তু এগুলো হাই কোয়ালিটি পিএ ডি এ কিনা ? তা জানবেন কিভাবে ? নিচের টুলটি আপানকে এব্যাপারে হেল্প করবে ।
Domain Authority & Page Authority Cheaker-
  1. http://www.seoreviewtools.com/bulk-…
  2. https://moz.com/researchtools/ose/
  3. http://smallseotools.com/domain-aut…
এটা দিয়ে আপনি আপনার প্রয়োজন অনুসারে সাইট কালেক্ট করে কমেন্ট শুরু করে দিন । কিন্তু কমেন্ট করবেন কিভাবে ? নিচের টিপস গুলো মনে রাখুন

ব্লগ কমেন্টিংয়ের ক্ষেত্রে মনে রাখতে হবে :

  • আপনি যে ব্লগে কমেন্ট করছেন, এর সঙ্গে আপনার দেওয়া সাইটের লিংকটি কতটা সংগতিপূর্ণ।
  • সব সময় চেষ্টা করবেন সবার প্রথমে কমেন্ট করতে।
  • এমন যদি হয় কেউ কোনো পোস্টে কোনো প্রশ্ন করেছে, তাহলে আপনি এর সঙ্গে দরকারি কোনো তথ্য যোগ করতে চাইলে তা কমেন্টের মাধ্যমে করতে পারেন।
  • চেষ্টা করবেন কমেন্টটিকে অর্থবহ করার জন্য। এর জন্য অন্তত চার-পাঁচ লাইনের একটি কমেন্ট লিখুন।
  • কমেন্টে আপনি যে ই-মেইল দিচ্ছেন, তার যেন প্রোফাইল ইমেজ দেওয়া থাকে।
  • আপনি কমেন্ট করার সময় আপনার নামেই দেওয়া ভালো, নিজের ব্র্যান্ড প্রমোশন করার জন্য। যদিও অনেকে এটি পছন্দ করেন না। কারণ এটিকে অনেক সময় স্প্যামিং হিসেবে গণ্য করা হয়। আবার যদি আপনার কমেন্টটি নাম ছাড়া হয়ে থাকে, তবে এর বিষয়বস্তু বা লেখা ইনফরমেটিভ হয়, তাহলে আপনার কমেন্টটি অবশ্যই গ্রহণযোগ্যতা পাবে।
  • আপনার কমেন্টটি যদি এমন হয় ‘Thank you!’ অথবা ‘Really nice post’ জাতীয়, তাহলে এমন কমেন্ট থেকে কিছুই লাভ হবে না।
চাইলে কমেন্টে এংকর টেক্সট ইউজ করতে পারেন । অনেকের কাছে এটি ঝামেলার মনে হতে পারে ।
এক্ষেত্রে এই টুলটি ইউজ করতে পারেনঃ
সহজে কমেন্ট করার উপায় কি ?
আপনি দেখবেন যে আপনার আগেই ওখানে অনেকে কমেন্ট করে রেখেছে । আপনি ওদের কারো কমেন্টকে রিরাইট করে পোস্ট করে দিতে পারেন ।
কি টুল দিয়ে কমেন্ট রিরাইট করবেন ?

কিভাবে কমেন্টকে সহজে এপ্রুভ করাবেন ?

  1. You must have a gravatar account
  2. Don’t do shit comment like (hello, thanks, keep posting, nice, visit my blog etc.)
  3. Give your thoughts on that post which must be related to post.
If you do these three points correctly I’m damn sure your comment should be approved easily.
রেডিমেড অটো কমেন্ট এপ্রুভাল সাইটঃ তাছাড়া আপনি কিছু সাইট ইউজ করতে পারেন যেগুলি অটো এপ্রুভ করে দেয় । এই লিংকে যান
এংকর টেক্সট জেনারেটরঃ
or
<a href=”http://www.example.com/“>YourWordsHere</a>
এই কোডটি ইউজ করতে পারেন….
ব্যাকলিংক ইনডেক্স চেকারঃ
আপনার করা ব্যাকলিঙ্ক টি সার্চ ইঞ্জিনে ইনডেক্স হয়েছে কিনা তা জানতে এই টুলটি কাজে লাগতে পারে।

মার্কেটপ্লেসে কি এমন কাজ আছে ?

আছে । প্রমান চান ?
https://goo.gl/9aYpa7 এই লিঙ্কে ক্লিক দেন ।
অথবা
এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ধারনা পেতে নিচের ভিডিও গুলো দেখুন-
https://www.youtube.com/watch?v=VgbS54Abt08
তবে অবশ্যই ব্যাক লিংক তৈরি করার আগে বায়ার এর কাছ থেকে ব্যাক লিংক এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো ( URL, KEY WORDS, EMAIL, DESCRIPTION) ইত্যাদি নিয়ে নিবেন।

2.Profile Backlink ( Very Easy Method - এটা খুব সহজ, যারা ইংলিশে দুর্বল তারা করতে পারেন )

আমরা যারা ফ্রিল্যান্সিং এ লিংক বিল্ডিং এর কাজ করতে চাই, তাদের জন্য প্রোফাইল ব্যাকলিংক একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। প্রোফাইল ব্যাকলিংক হচ্ছে, কোন নির্দ্দিষ্ট সাইটে রেজিষ্ট্রেশন করে নিজস্ব প্রোফাইল সেটিংস এ গিয়ে ওয়েব সাইটের URL দেওয়া। একটি হাই PR সাইটে ইনস্ট্যান্ট ব্যাকলিংক পাওয়ার এটি একটি সহজ পদ্ধতি।ধরুন, আপনি ফ্রিল্যান্সিং সাইটে কোন কাজ পেলেন ১০০ ব্যাকলিংক তৈরি করতে হবে হাই PR সাইটে। বায়ার ব্যাকলিংক তৈরির জন্য নির্দ্দিষ্ট কোন পদ্ধতির কথা উল্লেখ করলেন না, যেমনঃ ব্লগে কমেন্টস, ফোরামে পোষ্টিং ইত্যাদি। আপনি প্রোফাইল ব্যাকলিংক তৈরির মাধ্যমে বায়ারের এ কাজটি খুব কম সময়ে করতে সক্ষম হবেন।
নিচে প্রোফাইল ব্যাকলিংক তৈরি করা যায় এমন ১০০টি সাইটের লিষ্ট প্রদত্ত হল। মনে রাখতে হবে, এক এক সাইটে ব্যাকলিংক তৈরির পদ্ধতি এক এক রকম। কোন সাইটে হয়তো সরাসরি সাইটের লিংক দেওয়ার ফিল্ড পাবেন, কোনটাতে Add Link বাটন থাকবে, কোনটাতে About Me ফিল্ডে সাইটের URL দিতে হবে। মোটকথা, আপনার সাইটের একটি URL দেওয়ার সুযোগ থাকলেই হল।নিচে প্র্যাকলিক্যালি একটি সাইটে প্রোফাইল ব্যাকলিংক তৈরির পদ্ধতি স্টেপ বাই স্টেপ দেখানো হল।
1. প্রথমেই
এ সাইটে গিয়ে রেজিষ্ট্রেশন করুন।
2. লগ ইন করে নিচের ছবি মত আইকনে ক্লিক করুন।
3. Click Edit Profile
4. নিচের ছবির মত ওয়েব সাইট ফিল্ডে আপনার সাইটের URL দিন।তৈরি হয়ে গেল আপনার ব্যাকলিংক। নিচের ভিডিও টি দেখলে ব্যাপারটি পানির মত মাথায় ঢুকে যাবে -
প্রোফাইল ব্যাক লিংক করার জন্য জন্য তো ভাল মানের PA &DA সাইট লাগবে । এমন একটি লিস্ট এখান থেকে ডাউনলোড করে নিন ।
আর আমি নিজেও কিছু সাইট বের করেছি ।
205+ PAGERANK 5 PROFILE BACKLINKS SITES AND FORUMS লিস্টঃ
এগুলোর PA &DA বের করতে হলে এই টুলটি ইউজ করতে পারেন ।
গুগলে সার্চ দিলেও অনেক পাবেন । প্রোফাইল ব্যাক লিংক ব্যাকলিংক তৈরি করার পর লিংকটি যথাস্থানে সংরক্ষন করে রাখুন বায়ারকে দেওয়ার জন্য। এক্ষেত্রে এক্সেল শিট বেশি কার্যকরী । এমন একটি নমুনা ফরম্যাট দেখুন https://drive.google.com/file/d/0B5RlynPETd3PUUFyY0ozVHpvUGs/view?usp=sharing

অটো ব্যাকলিংক শিখে সহজে আয় করুনঃ

অটো ব্যাকলিংক সাইটের জন্য ক্ষতিকর হলেও কিছু আবুল বায়ার আছে ! যারা টাকা দিয়ে এসব ব্যাকলিংক কিনার জন্য অস্থির থাকে । ওদের চাহিদা মেটানোর জন্য নিচে কিছু টুলস দিলাম । এগুলির মাধ্যমে আপনি ব্যাকলিংক ক্রিয়েট করতে পারবেন ।
বিঃ দ্রঃ তবে এক্ষেত্রে ব্রাউজারের গেস্ট মুড ইউজ করা ভাল

ব্যাকলিংক জেনারেটর টুলঃ
http://w3seo.info/backlink-maker এই টুলের মাধ্যমে ৫০ টির মত ব্যাকলিংক পাওয়া যায় । পেলাম ৫০
https://www.metricbuzz.com/Free-Backlink-Builder-Generator/ এই টুলের মাধ্যমে প্রায় হাজার খানেক লিংক তৈরি করা যায় । তবে ৫০ পারসেন্ট লিংক ডেড হয় । যেগুলি সাকসেস বা ওকে লেখা উঠবে শুধু ওগুলিকে কাউন্ট করবেন । ওই সাকসেসফুল লিংক গুলিকে এক্সেলে কপি করবেন । তাহলে এভারেজে এই টুল থেকে আমরা লিংক পেলাম৫০০টি
http://100downloads.xyz/edugov/ এই টুলটির মাধ্যমে আপনি কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে ৭১ টি এডু অ্যান্ড গভ ব্যাকলিংক পাবেন । পেলাম ৭১ টি ।
http://smallseotools.com/backlink-maker/https://www.backlinkr.net/ এই টুলটি দেয় প্রায় ৮০ টির মত তবে এগুলি কপি করতে ঝামেলা । তাহলে পেলাম ৮০ টি
http://www.freebacklinkbuilder.net/ এই টুলটি প্রায় ৫০ টির মত ডু ফলো লিঙ্ক দেয় । যেগুলি ভাল মানের তাহলে পেলাম ৫০ টি
এবার এসব লিংক গুলো কে ইনডেক্স করে দিন ।

ইনডেক্স করবেন কিভাবে ?

সার্চ ইন গুগোল ।

কিভাবে কাজ জমা দিবেন ?
ব্যাকলিংক করার পর দেখবেন যে সবগুলি লিংক ভাল হবে না কিছু হবে এরর লিংক । ওই সব লিংক গুলিকে বাদ দিয়ে দিবেন । তারপর এগুলিকে এক্সেলে এন্ট্রি করে সাবমিট করবেন ।

৩.Forum Posting:-

Step 1: ফোরাম পোষ্টিং হলো বিভিন্ন ফোরাম সাইটে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্য দিয়ে সাইন আপ করা এবং সেখানে আপনার সাইটের লিংকটি শেয়ার করা। এটিই হবে আপনার সাইটের জন্য ব্যাক লিংক। এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ধারনা পেতে নিচের ভিডিওটি দেখুন-
  1. https://www.youtube.com/watch?v=tkh4QJw_Cis
Step 2: ফোরাম পোষ্টিং এর জন্য প্রয়োজনীয় সাইট পেতে নিচের লিংক এ প্রবেশ করুন এবং আপনার টপিকস্ রিলেটেড কিওয়ার্ড দিয়ে সার্চ করুন।
  1. http://linksearching.com/
  2. http://dropmylink.com/
  3. এছাড়াও এখানে কিছু High Quality ফোরাম সাইট দেওয়া আছে-http://www.mediafire.com/file/z87e41d8oco4tvb/40-DA-Profile-Backlinks.xlsx
Step 3: যথাযথ তথ্য দিয়ে ব্যাকলিংক তৈরি করুন এবং লিংকটি যথাস্থানে সংরক্ষন করে রাখুন বায়ারকে দেওয়ার জন্য।

4. Guest blogging:-

Step 1: গেস্ট ব্লগিং সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা পেতে পোষ্টটি পরুন – http://genesisblogs.com/tutorial-2/17371
এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ধারনা পেতে নিচের ভিডিওটি দেখুন-https://www.youtube.com/watch?v=G-b60O-SFdo
Step 2: প্রয়োজনীয় ধারনা পেয়ে গেলে এবার কাজ শুরু করে দিন।
  1. Guest Blog Site List – http://www.freelinks.com/
  2. সেরা কিছু গেস্ট ব্লগিং সাইটের লিস্টের লিংক – http://linksearching.com/40-best-ap…
Step 3: ব্যাক লিংক তৈরি করার পর লিংকটি যথাস্থানে সংরক্ষন করে রাখুন বায়ারকে দেওয়ার জন্য।# তবে অবশ্যই ব্যাক লিংক তৈরি করার আগে বায়ার এর কাছ থেকে ব্যাক লিংক এর জন্য প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো ( URL, KEY WORDS, EMAIL, DESCRIPTION) ইত্যাদি নিয়ে নিবেন।
# ব্যাক লিংক এর জন্য কিছু প্রয়োজনীয় Tools: Domain Authority & Page Authority Cheaker-
  1. https://moz.com/researchtools/ose/
Web Side Rank Chacker-
  1. https://moz.com/checkout/freetrial
High Profile Ranking-
  1. https://moz.com/researchtools/ose/
Get 31 Free Do Follow Backlinks PR 8 ,DA 75+ in Less than 10 Min 2017

How To Create Backlinks | My Best Methods [Hindi]

https://youtu.be/awhEMI2Zxn8

https://blog.kissmetrics.com/natural-link-building-101/

http://www.convinceandconvert.com/digita…/natural-backlinks/

http://backlinko.com/17-untapped-ba…

https://www.bloggertipstricks.com/n…