এলইডিপি কোর্সে সফলদের মুখোমুখি (অতিথিঃ মোঃ আসাদুজ্জামান, কুষ্টিয়া)

টিউন করেছেন admin | April 3, 2017 22:23 | পোস্টটি 599 বার দেখা হয়েছে

কুষ্টিয়া থেকে মোঃ আসাদুজ্জামান লার্নিং এন্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্টের গ্রাফিক ডিজাইন কোর্স করেছে। খুব বেশি না হলেও ইতিমধ্যে ইনকাম শুরু করেছে। কুষ্টিয়ার লাহিনি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ৩ডিসেম্বর থেকে শুরু হওয়া এ গ্রাফিক ব্যাচের ট্রেইনার ছিলেন মাইয়ুম ইফতি ও সাকিব হাসান। ট্রেইনার দু’জনের আন্তরিক সহযোগীতাতে এবং পরিশ্রমের কারনে আসাদুজ্জামান এত দ্রুত ইনকাম শুরু করতে পেরেছে। তার সাথে জেনেসিসব্লগস টীম মুখোমুখি হয়েছে। বিভিন্ন প্রশ্নের মাধ্যমে উঠে এসেছে কোর্সের বিষয় এবং সফলতার বিষয়ে অনেক গল্প, সেগুলো পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হয়েছে আজকের এ লেখাতে।

 

asad_kustia_gd

প্র্শ্নঃ১-  আপনি কখন থেকে ফ্রিল্যান্সার হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন?কেন ফ্রিল্যান্সার হতে আগ্রহী হলেন?

আসাদুজ্জামান: আমি প্রায় ৩বছর আগে থেকে ফ্রিল্যান্সার হওয়ার স্বপ্ন দেখছি। আমি ফ্রিল্যান্সার হতে আগ্রহী হলাম তার কারণ বর্তমানে ফ্রিল্যান্সিং সারা বিশ্বে বহুল প্রচারিত ও এই ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অনেকে ফ্রিল্যান্সিং কাজ করে তাদের জীবিকা নির্বাহ করে।

প্রশ্নঃ২-  আপনি কোন সাবজেক্টে কোর্স করেছেন, কেন এ সাবজেক্টটি বাছাই করেছেন?

আসাদুজ্জামান: আমি গ্রাফিক্স ডিজাইন সাবজেক্টে র্কোস করেছি। সারা বিশ্বে গ্রাফিক্স ডিজাইন একটি নির্ভরযোগ্য পেশা তাই আমি এই সাবজেক্ট বাছাই করেছি।

প্রশ্নঃ৩-  কোর্স চলাকালীন কতদিনের মধ্যে এবং কত ইনকাম করতে পেরেছেন?

আসাদুজ্জামান: কোর্স চলাকালীন ৩০দিনের মধ্যে প্রথম কাজ পেয়েছিলাম ৫০ডলার ও লোকাল কাজে প্রায় ৮হাজার টাকা ইনকাম করেছি।

প্রশ্নঃ৪-  এখন পযন্ত কত ইনকাম হয়েছে?কোন কোন সোর্স হতে এ ইনকামগুলো হয়েছে?

আসাদুজ্জামান: এখন পর্যন্ত freelancer.com এ ২৭০ডলার ও লোকালে প্রায় ১২০০০ হাজার টাকা ইনকাম হয়েছে।

প্রশ্নঃ৫- লার্নিং এন্ড আর্নিংয়ে কোর্স করার আগে ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে কতটুকু জ্ঞান ছিল?

আসাদুজ্জামান:  লার্নিং এন্ড আর্নিংয়ে কোর্স করার আগে ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ে ব্যাসিক ধারণা ছিল।

প্রশ্নঃ৬- এত অল্প সময়ে সফলতার পিছনে বিশেষ কোন কারন থাকলে সেটি শেয়ার করুন।

আসাদুজ্জামান: এত অল্প সময়ে সফলতার পিছনে রয়েছে, আমি মনে করি আমার মা-বাবার উৎসাহ, আমার অক্লান্ত পরিশ্রম ও লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রজেক্টের অফুরন্ত সহযোগীতা।

প্রশ্নঃ৭-  ট্রেনিং শুরু করার আগে যা প্রত্যাশা করেছেন, বাস্তবতার সাথে প্রত্যাশার কতটুকু মিল খুজে পেয়েছেন?

আসাদুজ্জামান:  ট্রেনিং শুরু করার আগে প্রত্যাশা ছিল ২মাসের কোর্স করে ফ্রিলান্সার হওয়া হয়তো সম্ভব না। কিন্তু আমার ধারণা ভুল প্রমাণীত করে দিল লানিং এন্ড আনিং প্রজেক্ট। বাস্তবতার সাথে আমার প্রত্যাশার মিল খুজে পাইনি।

প্রশ্নঃ৮-  সরকারী ট্রেনিংগুলোর ব্যাপারে সোশ্যাল মিডিয়াতে অনেক নেতিবাচক কথা শোনা যায়, সেগুলো কতটুকু সত্য?

আসাদুজ্জামান: সরকারি ট্রেনিংগুলোর ব্যাপারে সোশ্যালমিডিয়াতে অনেক নেতিবাচক অনেক সিনিয়রদের কাছ থেকে আমিও শুনে বিভ্রান্ত হয়েছি। আমি নিজে কোর্স করে দেখেছি, পুরোই উল্টো। খুবই কষ্ট করেছে, কোর্সের বাইরেও আমাদেরকে অনেক সাপোর্ট দিয়েছে ট্রেইনাররা।   সিনিয়ররা আমাদের সমাজে শুধু বিভ্রান্তেই তৈরি করতে পেরেছে, নতুনদেরকে ক্ষতি করছে। নিজেরা নতুনদের জন্য অবদান রাখতে পারছেনা।

প্রশ্নঃ৯-  ট্রেনিং সম্পর্কে বিশেষ কিছু কিংবা বিশেষ কোন মুহুর্ত পাঠকদের সাথে শেয়ার করতে পারেন।

আসাদুজ্জামান: আমার বেশি মনে পরে ট্রেনিং চলাকালীন সময় সেই মুহুর্তগুলো যখন আমরা (স্টুডেন্টরা) একটা বিষয়ে বারবার বিরক্ত করতাম ট্রেনারদের কিন্তু কখনো তারা বিরক্তবোধ করতো না। আমি মনেকরি এমন ট্রেনার পেলে একজন অতিদুর্বল স্টুডেন্ট ও ভালো করবে।

প্রশ্নঃ১০-  আপনার সফলতার জন্য আপনি কারও প্রতি কৃতজ্ঞ থাকলে এ সাক্ষাৎকারে কৃতজ্ঞতা জানাতে পারেন।

আসাদুজ্জামান: আমার সফলতার জন্য আমি কৃতজ্ঞতা জানাই আমাদের সম্মানীয় ট্রেনারবৃন্দ “মাইয়ুম ইফতি” ও “সাকিব হাসান” কে, কুষ্টিয়া জেলার কো-অর্ডিনেটর “আব্দুল্লাহ ফারুক” সাহেবকে। এবং আরোও কৃতজ্ঞতা CBSG কে LEDP প্রজেক্টটি সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করার জন্য।

Note: special thanks to Groverment of Bangladesh

for this helpfully project.

 

প্রশ্নঃ১১-  যারা কোর্স করেছেন, তারা সবাই এখনও সফল হয়নি। যারা এখনও সফল হয়নি, তাদের প্রতি আপনার কোন উপদেশ থাকলে সেটি বলতে পারেন।

আসাদুজ্জামান: যারা কোর্স করেছেন, যারা এখনও সফল হয়নি তাদের উদ্দেশ্যে বলছি, কেও হতাস হবেননা আজ না হয় কাল আপনি অবশ্যই সফল হবেন। তাই আপনাকে পরিশ্রম করতে হবে,  আর পরিশ্রম করলে তার ফল কখনও বিফলে যায়না।

প্রশ্নঃ১২- ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?

আসাদুজ্জামান: ফ্রিল্যান্সিং ভবিষ্যতে আর ও বড় আকার ধারণ করবে। কারণ উন্নত দেশগুলো তাদের কাজ স্বল্প খরচে ভালো মানের পাওয়ার জন্য ফ্রিল্যান্সার দিয়ে করিয়েনেই এবং ভবিষ্যতেও নেবে। তাই ফ্রিল্যান্সিং এর ভবিষ্যত তারকাময়।

বাংলাদেশ সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের লার্নিং  এন্ড আর্নিং প্রজেক্টের কোর্স করে যারা সফল হয়েছেন, তাদের গল্পগুলো জেনেসিসব্লগসের পাঠকদের জন্য এখন  থেকে নিয়মিত প্রকাশ করা হবে। সফলদের থেকে অনুপ্রেরণা নিয়ে অন্যরাও যাতে তাদের পরবর্তী পথকে সাজাতে পারে, সেই লক্ষ নিয়ে জেনেসিসব্লগস টীম কাজ করে যাচ্ছে।  আপনিও লার্নিং এন্ড আর্নিং প্রজেক্টের কারনে সফল হয়ে থাকলে আমাদের সাথে অফিসিয়াল ফেসবুক পেজের মাধ্যমে যোগাযোগ করতে পারেন।