ইউটিউব চ্যানেলের সাবস্ক্রাইভার এবং ভিডিওর ভিজিটর কিভাবে বাড়াবেন?

ekram

বর্তমানে অনলাইন মার্কেটার হিসেবে কাজ করছি, ওয়েবডিজাইন এবং গ্রাফিকসটাও নিজের নেশা। আইটি প্রতিষ্ঠান, ন্যাশনাল আইটি ইন্সটিটিউট (https://www.facebook.com/nationalinst) এর সিইও । জেনেসিসব্লগসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন ।
টিউন করেছেন ekram | August 6, 2016 12:50 | পোস্টটি 1,736 বার দেখা হয়েছে

ইউটিউব চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করে ইনকাম, বর্তমান যুগে অত্যন্ত জনপ্রিয় ফ্রিল্যান্সিং সেক্টর। যাকে প্রফেশনাল ভাষাতে অনেকেই ভিডিও ব্লগ বা ভ্লগ বলছে। ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করলে আর অ্যাডসেন্স বসালেইও ইনকাম শুরু হয়ে যাবেনা। ইউটিউবের চ্যানেলে ভিডিও আপলোড করেছেন ইনকাম করার স্বপ্ন নিয়ে। কিন্তু ভিজিটর না হলেতো ইনকাম নাই। ভিজিটর কিভাবে বাড়াবেন সেই বিষয়টি নিয়েই এ টিউনে গুরুত্বপূর্ণ দিক নির্দেশনা পাবেন।

১ম পর্বের কাজ: (ভিডিও তৈরি এবং প্রস্তুতি)

ক) মানসম্মত ভিডিও নিয়ে আসে প্রচুর ভিজিটর। এটা সবসময়ে মাথাতে রাখতে হবে।
মানসম্মত ভিডিওর ৩টি বিষয়ের উপর নির্ভর করে:
- কনটেন্ট: ভ্যালু ক্রিয়েট করে এরকম ভিডিও, কিংবা বিনোদিত করে এরকম কিংবা ফানি ভিডিও। অবশ্যই ইউনিক হবে।
- স্মার্ট প্রেজেন্টশন: ভিডিও কোয়ালিটি, সাউন্ড কোয়ালিটি, প্রফেশনাল এডিট।
- অ্যাংগেজমেন্ট: যে ভিডিও সংশ্লিষ্ট মানুষদের মনে দাগ কাটতে পারে, সেই রকম ভিডিও
খ) ভিডিওটি ইউটিউবে আপলোডের সময় অনপেইজ অপটিমাইজেশন:
- টাইটেল: ভিডিওটির টাইটেলে সার্চ হয় এরকম কোন কীওয়ার্ড ব্যবহার করে সংক্ষিপ্ত টাইটেল
- ডেসক্রিপশন: ভিডিওটির ডেসক্রিপশনে সংক্ষিপ্তভাবে ভিডিওটির ভিতরে কি পাবে, মানুষের ভিতরে আগ্রহ জন্মাবে এরকম ভাবে বর্ণনা লিখতে হবে। অবশ্যই কীওয়ার্ড বসানোর ব্যপারটি মাথাতে রাখতে হবে। ১ম লাইনেই কীওয়ার্ডটি যাতে থাকে।
- ট্যাগ: ট্যাগে সার্চ হতে পারে এরকম সম্ভাব্য সকল কীওয়ার্ডগুলো কমা কমা দিয়ে বসিয়ে দিন।
- থাম্বনেইল: থাম্বনেইল ইমেজের ক্ষেত্রেও সচেতন হোন। ভিডিওটি দেখতে আগ্রহী হবে থাম্বনেইলটি দেখে।

 ১ম পর্বের কাজ শেষ, এবার দ্বিতীয় পর্ব: (ভিডিও মার্কেটিং)

এত যত্ন করে ভিডিওটি বানালেন, কিন্তু মানুষ দেখলোনা, তাহলে কষ্ট সব বৃথা হয়ে যাবে। তাই নিজের এ সৃষ্টিকে যতটা সম্ভব, বেশি মানুষের কাছে পৌছানোর চেষ্টা করুন। মানুষ কোথায় কোথায় থাকে একবার চিন্তা করে বের করুন, নিজের মাথা খাটিয়ে। তাহলেই আপনি উত্তর পেয়ে যাবেন কি করতে হবে।
- মানুষ যেকোন সময় ইউটিউবে এসে সার্চ করে। সেই সার্চে আপনার ভিডিওটি উপরে থাকলে আপনার ভিডিওতে দর্শক পেয়ে যাবেন।
- সোশ্যালমিডিয়া সাইটগুলোতে বর্তমানে সবচাইতে বেশি মানুষ থাকে। ইন্টারেস্ট জাগানোর মত মেসেজ লিখে সোশ্যালমিডিয়াতে ভিডিওটি শেয়ার করলে এখান থেকে প্রচুর ভিজিটর পাবেন।
- ব্লগ এবং নিউজ সাইটগুলোতে বর্তমান যুগে বিশাল সংখ্যক মানুষ নিয়মিত ভিজিট করে। এধরনের সাইটগুলোতে কোন টিউনের সাথে রেফারেন্স হিসেবে ভিডিওটি যুক্ত করুন।
- সোশ্যালমিডিয়া কিংবা ব্লগে একবার ভিডিও শেয়ার করলেই ভিজিটর পেয়ে যাওয়ার আশা করা উচিত হবেনা। বিভিন্ন কৌশলে প্রচুর শেয়ার করুন। তবে বিরক্তির সৃষ্টি না করে আগ্রহ জন্মিয়ে শেয়ার করতে হবে।
- চ্যানেল রিলেটেড গুরুত্বপূর্ণ সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে গ্রুপ বা কমিউনিটি এবং ভিডিও রিলেটেড ব্লগ খুলতে হবে। ভাল ফলাফল পাবেন তাতে।

 সবশেষ পরামর্শ:

- টাকা ইনকামের জন্য ভিডিও না বানিয়ে মানুষের উপকারের জন্য কিংবা বিনোদিত করতে ভিডিও প্রস্তুত করুন।
- ভিডিও কনটেন্ট ইউনিক রাখুন। ভিডিওতে ব্যবহৃত অডিও ব্যবহারের ক্ষেত্রেও যাতে ডুপ্লিকেট না হয়।
- মানুষের আগ্রহের বিষয়টি অ্যানালাইস করে তারপর ভিডিওর কনটেন্ট প্লান করুন।
- ভিডিওটি সম্পর্কে যারা আগ্রহী হতে পারে, তাদের কাছেই ভিডিওটির মার্কেটিং করুন। অন্যদের কাছে করে লাভ হবেনা।
ভিডিওতে ভিউ বাড়তে থাকলে এবং নিয়মিত ভিডিও আপলোড করতে খাকলে চ্যানেলে সাবস্ক্রাইভ বাড়তে থাকবে।

যে কোন প্রশ্ন ফেসবুকের পেজে এসে করুন। ফেসবুক পেজ: https://www.facebook.com/videopathshala