জানতে হবে অনেক কিছু – ৩ (ভিডিও সহ)

ekram

বর্তমানে অনলাইন মার্কেটার হিসেবে কাজ করছি, ওয়েবডিজাইন এবং গ্রাফিকসটাও নিজের নেশা। আইটি প্রতিষ্ঠান, ন্যাশনাল আইটি ইন্সটিটিউট (https://www.facebook.com/nationalinst) এর সিইও । জেনেসিসব্লগসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন ।
টিউন করেছেন ekram | February 26, 2016 00:19 | পোস্টটি 965 বার দেখা হয়েছে

জানতে হবে অনেক কিছু – ৩ (ভিডিও সহ)


“ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য কি শিখব? ” এ উত্তরটি পাওয়ার জন্য ধারাবাহিকভাবে পোস্টগুলো পড়তে থাকুন। 

 আজকের পর্ব: ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে ওয়েব ডিজাইন  

free

আগের পর্ব:

পর্ব ১: গ্রাফিক ডিজাইনকে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেওয়ার পক্ষে যুক্তি

পর্ব ২: এসইও কে ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেওয়ার পক্ষে যুক্তি

ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য কোনটি শিখবেন, এ সিরিজের আজকের পর্বে ওয়েব ডিজাইনকে ক্যারিয়ার হিসেবে নেওয়ার পক্ষে যুক্তিগুলো তুলে ধরব। এ পর্বে এ সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তরগুলো পেয়ে যাবেন।
১) ফ্রিল্যান্সিং এবং চাকুরির সুযোগ:
ওয়েবডিজাইন শিখার পিছনে সবচাইতে বড় যুক্তি হচ্ছে, ওয়েবডিজাইন শিখে যেমন ফ্রিল্যান্সিং করা যায়, তেমনি বাংলাদেশেও এ যোগ্যতা কাজে লাগিয়ে প্রচুর চাকুরির সুযোগ রয়েছে। লোকাল চাকুরিতে শুরুতে বেতন শুরু হয়: ১২,০০০টাকা। অভিজ্ঞতা এবং কাজের দক্ষতার উপর ভিত্তি করে বেতন ২লাখ টাকা পযন্ত হয়ে থাকে।
২) ফ্রিল্যান্সিংয়ের সেক্টরগুলো কোথায় কোথায়?
বিডিং করে কাজ যোগাড় করতে চাইলে, আপওয়ার্ক (upwork), গিগ বানিয়ে কাজ যোগাড় করতে চাইলে, ফাইভার (fiverr), নিজের তৈরি থিম বিক্রি করতে চাইলে, থিমফরেস্ট (themeforest.net)। এ তিনটি মার্কেটপ্লেস কাজ করার জন্য বিখ্যাত। এগুলোর বাইরেও লোকাল কাজ যোগাড় কিংবা অনলাইনে মার্কেটিং করেও সরাসরি কোম্পানী থেকে কাজ যোগাড় করা সম্ভব হয়।
৩) একাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ড কিরকম থাকতে হবে?
অনেকের ধারণা, কম্পিউটার সায়েন্সের স্টুডেন্টরাই শুধুমাত্র ওয়েবডিজাইন শিখতে পারে। কিন্তু বাস্তব চিত্র দেখা যায়, যারা বেশি ইনকাম করছে কিংবা বিভিন্ন কোম্পানীতে চাকুরিরত ওয়েবডেভেলপারদের সংখ্যা হিসেব করলে কম্পিউটার সায়েন্সের স্টুডেন্ট পাওয়া যায় মাত্র ২০%। অ্যাকাডেমিক ব্যাকগ্রাউন্ড এক্ষেত্রে কোন বাধা নয়, যে কেউ ভালভাবে কাজ শিখে ওয়েবডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে পারেন।
৪) কি কি শিখতে হবে?
Html, css, jquery, bootstrap, my sql, advance php, wordpress or others cms
৫) ওয়েবডিজাইন শিখব নাকি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট শিখব?
একটা ওয়েবসাইটের কাজকে প্রধাণত ৩টা ভাগে ভাগ করতে হয়। প্রথমভাগে, গ্রাফিক ডিজাইনার মূল ডিজাইন তৈরি করেন। সেটিকে ওয়েবডিজাইনাররা কোডিংয়ে কনভার্ট করে। এরপরের কাজটি ওয়েবডেভেলপারদের। ওয়েবডেভেলপাররা ওয়েবসাইটটাতে প্রান দেয়। কোডিং ছাড়াই ওয়েবসাইটটিকে নিয়ন্ত্রন করা থেকে শুরু করে, রেজি: ফরম, কিংবা আরও অনেক বিষয়যুক্ত করে তারা ওয়েবসাইটটিকে জীবন্ত করে তুলে। গ্রাফিকডিজাইনার না হয়েও ওয়েবডিজাইনার হওয়া সম্ভব হলেও ওয়েবডিজাইনার হওয়ার আগে ওয়েবডেভেলপার হওয়া সম্ভব নয়। তাই আগে ওয়েবডিজাইন শিখতে হয়। পরে নিজের ইনকাম বৃদ্ধির জন্য নিজেকে আরও অ্যাডভান্স লেভেলে নিতে ওয়েবডেভেলপিং শিখতে হয়।
এ কয়েকটি বিষয় শিখে প্রচুর বাস্তবভিত্তিক কাজ করলে দক্ষতা অর্জন হবে। বাজারেও চাহিদা তৈরি হবে।
বিশেষ দ্রষ্টব্য: বাস্তব ভিত্তিক কাজ করার কোন উদাহরণ না থাকলে ফ্রিল্যান্সিং কিংবা চাকুরি কিছুতেই সফল হতে পারবেননা।

ভিডিও লিংক: