জানতে হবে অনেক কিছু -১ (ভিডিও সহ)

ekram

বর্তমানে অনলাইন মার্কেটার হিসেবে কাজ করছি, ওয়েবডিজাইন এবং গ্রাফিকসটাও নিজের নেশা। আইটি প্রতিষ্ঠান, ন্যাশনাল আইটি ইন্সটিটিউট (https://www.facebook.com/nationalinst) এর সিইও । জেনেসিসব্লগসের প্রতিষ্ঠাতা অ্যাডমিন ।
টিউন করেছেন ekram | February 17, 2016 03:17 | পোস্টটি 1,420 বার দেখা হয়েছে

ফ্রিল্যান্সিং বিষয়ক ধারাবাহিক সিরিজ ভিডিওসহ ‍ প্রকাশ করা হবে।

“ফ্রিল্যান্সিংয়ের জন্য কি শিখব? ” এ উত্তরটি পাওয়ার জন্য ধারাবাহিকভাবে পোস্টগুলো পড়তে থাকুন।

  আজকের পর্ব: ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ার হিসেবে গ্রাফিক ডিজাইন  

গ্রাফিক ডিজাইনকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নিতে পারেন যে কয়েকটি কারনে:

free


১) ইংরেজী কম জানাঃ এসইওর কাজে ইংরেজিতে অনেক দক্ষতার প্রয়োজন হলেও ইংরেজিতে অপেক্ষাকৃত কম দক্ষতা স্বত্ত্বেও গ্রাফিকসের কাজ করে ফ্রিল্যান্সিংয়ে আয় করতে খুব বেশি সমস্যা হয়না। শুধুমাত্র বায়ারের সাথে যোগাযোগ রক্ষা করার জন্য অল্প কিছু ইংরেজি জানলেই কাজ করা সম্ভব।
২) লেখালেখি করা অপছন্দের: এসইওতে লেখালেখি বিষয়টা সবচাইতে বেশি জরুরী। যারা লেখালেখি বিষয়টাকে ইনজয় করেননা, তারা এসইও না শিখে গ্রাফিক ডিজাইন শিখতে পারেন।
৩) অল্প সময়ের কাজঃ কোন ওয়েবসাইটকে যদি এস ই ও করে গুগলের সার্চে টপে আনতে চাই, তাহলে সে কাজ ২-৩ মাসের সময়সাপেক্ষ ব্যাপার। তার মানে আমার কাজের ফলাফল দেখতে হলে আমাকে ২-৩ মাসের জন্য পরিশ্রম করতে হবে। আবার একটা ওয়েবডিজাইন করতেও মোটামুটি ১মাস সময় লেগে যায়, তার বেশি সময়ও লাগে।
অন্যদিকে যখন ডিজাইন করবেন, সেটা অপেক্ষাকৃত দ্রুত যেকোন প্রজেক্ট সম্পন্ন করতে পারবেন। একটা লোগো ডিজাইন কিংবা ওয়েব টেমপ্লেট যখন ডিজাইন করবেন, ২-৭দিনের মধ্যে সম্পন্ন করে ফেলতে পারবেন, অনেক সময় একদিনেই সম্পন্ন করা সম্ভব হয়।
৪) পড়ালেখা করার ঝামেলা মুক্তঃ এস ই ও করার জন্য প্রচুর পড়তে হয়। কোন আর্টিক্যাল লিখতে হলে আগে সে ব্যাপারে পড়ে অনেক কিছু জানতে হবে, পরে লিখতে হবে। ওয়েবের কাজের জন্যও অনেক স্টাডি করার প্রয়োজন রয়েছে।
গ্রাফিকসের জন্য পড়তে হয়না, শুধুমাত্র বিভিন্ন ছবি বা ফটো দেখতে হয়, এ কাজটি আমার মনে হয় পৃথিবীর সবার কাছেই অনেক ইনজয়ের কাজ।
৫) নিজেই করা যায়, গ্রুপ করার ঝামেলা নাইঃ এসইওর কমপ্লিট প্রজেক্ট কিংবা ওয়েব ডেভেলপের কমপ্লিট প্রজেক্ট সম্পন্ন করতে টিম নিয়ে কাজ করতে হয়।
গ্রাফিকসের কাজে টিম ছাড়াই একা সম্পন্ন করা যায়।
৬) কোডিংয়ে আতংক: যারা কোডিংকে পছন্দ করেননা, বোরিং কিংবা আতংক মনে করেন, তাদের অপছন্দের কাজকে জোর করে করার দরকার নাই। বেছে নিতে পারেন, গ্রাফিক ডিজাইনকে। কাজকে ভালবাসতে পারবেন সহজেই, ইনকামটাও করতে পারবেন।
৭) সব সেক্টরের জন্য জরুরী বিভাগ ডিজাইন: এসইও, ভিডিও এডিটিং, অ্যানিমেশন, ওয়েবডিজাইন প্রতিটা সেক্টরেই প্রয়োজন ডিজাইন সম্পর্কিত কাজ। ভাল মানের ডিজাইনার হলে এরকম প্রতিটা কাজের অংশ হওয়ার সুযোগ থাকছে। সেক্ষেত্রে কাজের সেক্টরের পরিধি অনেক সহজেই উপলব্ধি করা যায়।

ভিডিও লিংক:

 

  • Rubel

    ভাইয়া সুন্দর ও গঠন মূলক যুক্তির জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। ভাইয়া আমি অনলাইনে ডিজাইন শিখতে চাই কোন ভালো বাংলা ডিজাইন সাইট বা ইউটিউব সাইট আছে কি ? উত্তর দিলে অনেক উপকৃত হবো। ধন্যবাদ ।

    • enamul

      All easy but difficult where.