ফ্রিল্যান্সিংয়ে নতুন কিন্তু সফলদের আড্ডা (অতিথিঃ সুজন মোল্লা )

টিউন করেছেন admin | April 15, 2015 05:43 | পোস্টটি 1,405 বার দেখা হয়েছে

www.techtunes.com.bd থেকে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে প্রথম অবগত হন সুজন মোল্লা ।  অত্যন্ত প্রত্যয়ী এই তরুণ গ্রাফিক্স ডিজাইনিং এ  প্রশিক্ষণ নিয়ে  ২০১৪ সালের জুলাই থেকে fiverr.com এ কাজ শুরু করেন । যাত্রার শুরু এখানেই । কম সময়ে সহজভাবে কাজ করার দরুন www.fiverr.com কেই তিনি বেছে নিয়েছেন তার নিজের কাজের ক্ষেত্র হিসেবে । যেখানে তার দৈনিক ব্যায়কৃত  কাজের সময় মাত্র ২ ঘন্টা । সুজন মোল্লা, টিমওয়ার্কের মাধ্যমে  গড়ে দিতে চান নতুন এবং আগ্রহী  ফ্রিল্যান্সারদের সফল ক্যারিয়ার ।

মার্কেটপ্লেসে  তার আইডি সমুহ- https://www.odesk.com/users/~01683539e4e90123ac

www.fiverr.com/smitexpert

sujan malla

 

১।  ফ্রিল্যান্সিংয়ে কিভাবে উদ্বুদ্ধ হয়েছিলেন?

সুজনঃ আমি প্রথমত www.techtunes.com.bd থেকে ফ্রিল্যান্সিং সম্পর্কে জানতে পারি । এবং এটিও খুব ভাল করে বুঝতে পারি যে, প্রথমে আমাকে কোন একটি বিষয় ভাল করে শিখতে হবে, তারপর ফ্রিল্যান্সিং করতে হবে ।

২।  কবে থেকে ফ্রিল্যান্সিং শুরু করেছিলেন? সাধারণত কি কাজ করেন?

সুজনঃ আমি ২০১৪ সালের জুলাই মাস থেকে fiverr.com এ business card, letterhead এবং logo design এর কাজ শুরু করি ।

৩। ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজ শিখেছিলেন কিভাবে?

সুজনঃ আমি গ্রাফিক্স ডিজাইনিং  শিখার জন্য ভাল একটি প্রতিষ্ঠান খুঁজছিলাম । তারপর একদিন www.techtunes.com.bd তে একটি স্পন্সার টিউন দেখতে পেলাম Creative IT Institute এর । তারপর আমি প্রতিস্ঠানটির সমন্ধে ভাল করে খোঁজ খবর নিলাম এবং তাদের ফেইসবুকে Group এবং  পেজটি দেখলাম।  তাতে আমি বুঝতে পারলাম যে এই প্রতিষ্ঠান থেকেই ভাল করে কাজ গুলি শিখা যাবে । তাই Creative IT institute থেকেই কাজ শিখলাম ।

৪। কোন মার্কেটপ্লেসে কাজ করতে বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করেন? কেন?

সুজনঃ আমি মূলত www.fiverr.com এতে কাজ করতে বেশি স্বাচ্ছন্দবোধ করি । কারণ, এই সাইটটিতে আমাকে সবচেয়ে কম সময় দিতে হয় । এই সাইটে কাজের জন্যে কখনো বিড করার দরকার হইনা, এখানে আপনি যে বিষয়টি ভাল জানেন সেই বিষয়ের উপর একটি gig তৈরি করতে হবে, তারপর Buyer ই আপনাকে খুঁজে নিবে, আপনাকে ঐ বিষয়ের উপর অর্ডার দেওয়ার জন্যে ।

৫। ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজে প্রথমবার কত পেমেন্ট পেয়েছিলেন? কাজ কি ছিল? সেই টাকা দিয়ে কি করেছিলেন?

সুজনঃ Fiverr এ প্রতিটি GIG ৫ ডলার এ অর্ডার হই এবং আমি ৫ ডলার থেকে ৪ ডলার পাই আর Fiverr ১ ডলার  কেটে নেয় ।

আমি প্রথম বার ১০০ ডলার উত্তোলন করেছিলাম এবং সেই টাকাটি আমি আমার বাবা এবং মায়ের হতে তুলে দেই । আর তারা আমাকে সেই টাকা দিয়ে একটি Symphony W69Q হ্যান্ড সেট কিনে দেয় ।

৬। ফ্রিল্যান্সিং থেকে আয় করা পেমেন্ট কিভাবে উত্তোলন করেন?

সুজনঃ আমি আমার অর্জিত অর্থ উত্তোলন করি আমার Payonner Master Card দিয়া ।

৭। ফ্রিল্যান্সিং নিয়ে আপনার ভবিষ্যত পরিকল্পনা কি?

সুজনঃ আমি একটি গ্রুপ করতে চাই যেখানে আমার মত আগ্রহী ফ্রিল্যান্সাররা একসাথে কাজ করতে পারে এবং তাদের ফ্রিল্যান্সিং ক্যারিয়ারটি সফল করতে পারে ।

৮। এখন পযন্ত ফ্রিল্যান্সিং থেকে আনুমানিক কি পরিমাণ আয় করেছেন?

সুজনঃ আমি এই পর্যন্ত প্রায় ৳15,000+ টাকা আয় করেছি ।

৯। ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজে আপনি দিনে কত ঘন্টা ব্যয় করেন? কোন সময়টিতে কাজ করতে স্বাচ্ছন্দবোধ করেন?

সুজনঃ আমি গড়ে দৈনিক সর্বোচ্চ ২ ঘন্টা ব্যয় করি । আর আমার এই সময়টি নির্ভর করে অর্ডার এর টাইম এর উপরে ।

১০। ফ্রিল্যান্সিংয়ের কাজ করতে আগ্রহীদের সফল হওয়ার পথে অন্তরায় কি বলে মনে করেন?

সুজনঃ আমি মনে করি যারা এই পথে এসে ব্যর্থ হয়েছে তাদের ব্যর্থ হওয়ার পিছনে একটিই কারণ আর সেটি হচ্ছে, হতাশা এবং ভয় । তাদের মনের মধ্যে একটি ঝড়ই বইতো আর তা হচ্ছে আমি কি পারবো? আমাকে দিয়ে হইতো হবে না । তাই তারা আজ ব্যর্থ । আর যারা আঠার মতো লেগেছিল তদের মনের ভিতর ছিল – আমি পারবোই আমাকে পারতেই হবে । আর তারা চেষ্টার উপর চেষ্টা করেই যেত ।

১১। অনলাইনে আয় করতে হলে কি কি প্রস্তুতি নিতে হবে বলে মনে করেন?

সুজনঃ আমি ২টি বিষয়কে প্রাধান্য দেই –

১– আপনি যে বিষয়টি পারবেন বলে আপনার কছে মনে হবে, সেই বিষয়টি আপনাকে ভাল করে শিখতে হবে ।

২– মূলত ফ্রিল্যান্সিং এ আপনাকে বাইরের দেশের Buyer গন কাজ দিবেন । আর তারা তাদের প্রয়োজনীয় তথ্যাবলি ইংলিশে আপনাকে বলবে । অতএব আপনাকে তার সাথে যোগাযোগ করার মতো ইংরেজি জানতে হবে ।

১২। বাংলাদেশের যারা অনলাইনে আয় করতে ইচ্ছুক, তাদের জন্য আপনার পরামর্শটি জানান।

সুজনঃ দিন যতই যাচ্ছে কাজের মান ততটাই উন্নত হচ্ছে । তাই এখনকার অবস্থা অনুযায়ী আপনাকে ভাল মানের কাজ জানতে হবে, যাতে করে আপনি বর্তমানকার ফ্রিল্যান্সিং এর প্রতিযোগিতায় আপনার নিজের স্হানটি দখল করে নিতে পারেন ।

জেনেসিসব্লগসের নিয়মিত আয়োজনের উদ্দেশ্য নতুন যারা ফ্রিল্যান্সিংয়ের করছেন, তাদেরকে সবার সাথে পরিচয় করে দেওয়া। যারা ফ্রিল্যান্সিং শুরু করতে আগ্রহী, তারা  এ গল্পগুলো পড়ে অনুপ্রাণিত হলেই স্বার্থক হবে আমাদের এ আয়োজন। নতুন কোন ফ্রিল্যান্সার তাদের সাক্ষাৎকার প্রকাশ করতে চাইলে যোগাযোগ করার জন্য লিংকঃ  আফরোজা সুলতানা

 

  • শমি হোসাইন

    এই অগ্রযাত্রা শুভ হোক