ডিজিটাল মার্কেটিং এর আদ্যোপান্ত – জেনে নিন ডিজিটাল মার্কেটিং এর A to Z

অপ্রস্তুত আযহার

মীর আযহার আলি। পেশায় একজন ফিন্যান্সিয়াল অ্যানালিস্ট। পাশাপাশি অর্থনীতি, বিনিয়োগ ও অন্যান্য বিষয়ে ব্লগে লেখালেখি করছেন। সাম্প্রতিক বিশ্বে ঘটে যাওয়া প্রত্যেকটি বিষয়ে তিনি আপডেট থাকতে পছন্দ করেন। তার বিভিন্ন লেখাগুলো পড়বে পারবেন জেনেসিসব্লগ, টেকটিউনস এবং সামহোয়ারইন ব্লগ থেকে।
টিউন করেছেন অপ্রস্তুত আযহার | March 16, 2017 03:16 | পোস্টটি 1,320 বার দেখা হয়েছে

বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং কে বলা যায় একটি কোম্পানি, কোম্পানির পণ্য বা সেবার প্রচার ও প্রসারের জন্য অন্যতম প্রধান হাতিয়ার। এর প্রধান কারণ – যুগের চাহিদা। বর্তমান জুগ ডিজিটাল যুগ। আপনি এখন যে পৃথিবীতে বাস করছেন তার সর্বত্র ছড়িয়ে আছে ডিজিটাল প্রযুক্তির ছোঁয়া। সাধারন মানুষ, বিশেষ করে আমাদের ইয়াং জেনারেশন এর কাছে বিভিন্ন ইলেকট্রনিক ডিভাইস, সোশ্যাল মিডিয়া, অনলাইন কমিউনিকেশন ও শেয়ারিং ইত্যাদির জনপ্রিয়তা দ্রুত গতিতে বাড়ছে। তাই বর্তমান যুগে আপনি যদি অল্প পরিশ্রমে খুব সহজে আপনার পণ্যের প্রচার ও মার্কেটিং করতে চান, তাহলে আপনাকে ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করতেই হবে। আর ডিজিটাল মাধ্যম ব্যবহার করে প্রচারণা চালানো মানেই হচ্ছে ডিজিটাল মার্কেটিং। বর্তমান সময়ে ডিজিটাল মার্কেটিং এতটাই জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে যে গড়ে উঠেছে বেশ কিছু ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি। আরও বিস্তারিত জানুন এই সম্পর্কেঃ Digital Marketing Agency in Bangladesh

আজকের এই পোষ্ট থেকে আমরা জেনে নেব ডিজিটাল মার্কেটিং এর আদ্যোপান্ত। এবং সেই সাথে আপনি কীভাবে ডিজিটাল মার্কেটিং কে পেশা হিসেবে নিতে পারেন তা নিয়ে আলোচনা করবো। প্রথমেই আসুন দেখে নেই ডিজিটাল মার্কেটিং এর বিভাগ বা প্রধান কার্যাবলি কি কিঃ

ডিজিটাল মার্কেটিং বিভাগ সমূহঃ

একটি ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি কে অনেক ধরণের কাজের সাথে সম্পৃক্ত থাকতে হয়। তার মধ্যে মূল যে কাজগুলো রয়েছে, তা হলোঃ

  • ওয়েব এবং অ্যাপ ডিজাইন
  • সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও)
  • সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং
  • কনটেন্ট মার্কেটিং
  • ভিডিও প্রোডাকশন এন্ড মার্কেটিং
  • পেইড এডভার্টাইজিং ক্যাম্পেইন
  • ই-মেইল এবং এসএমএস মার্কেটিং
  • ওয়েব এনালিটিক্স

সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশন (এসইও)

ডিজিটাল মার্কেটিং এর এর একটা বড় অংশ জুড়ে রিয়েছে এসইও। সার্চ ইঞ্জিন অপ্টিমাইজেশান (SEO) মূলত আপনার ওয়েবসাইটটিকে গুগল, ইয়াহু বিং বা অন্য কোন সার্চ ইঞ্জিন এর সার্চ ফলাফলের মধ্যে টপ পজিশনে নিয়ে আসবে। আমারা সাধারণত সার্চ করার পর গুগলে প্রথম সারির যে ফলাফল গুলো আসে তাতেই ক্লিক করি। খুব কম মানুষ আছে যারা প্রয়জনিয় বিষয় খুঁজে বের করার জন্য গুগলের পরবর্তী পেইজগুলোতে যায়। তাই আজকের প্রতিযোগিতার বাজারে পণ্যের মার্কেটিংয়ের ক্ষেত্রে এসইও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা রয়েছে। এসইওর মাধ্যমে আপনার প্রতিস্থান, সারভিস বা পণ্যকে গুগল সার্চের সবচাইতে উপরে নিয়ে আসতে পারবেন। এর ফলে আপনার পণ্যের বিক্রিও বৃদ্ধি পাবে কারন বর্তমানে মানুষ কোন পণ্য কেনার আগে গুগল থেকে সার্চ দিয়ে সিদ্ধান্ত নিয়ে থাকে। গুগল তার তথ্য গুলো নিয়মিত আপডেট করে। মনে রাখবেন, এটার অধিকাংশ খরচ কার্যকর মার্কেটিং কৌশলের উপর ভিত্তি করে যা আপনার ব্যবসার জৈব ট্রাফিক নিয়ে আসবেন। তবে আনাড়ি হাতে এসইও করতে গেলে অনেক সময় প্রবলেম হতে পারে। তাই আপনারা একজন এক্সপার্ট এর সাহায্য নিলে ভালো করবেন। আমার এই পোষ্ট থেকে সাহায্য পাবেনঃ SEO service provider company in Bangladesh

সোশ্যাল মিডিয়া মার্কেটিং

আপনার ব্যবসায়িক পণ্যের প্রচারের জন্য সোশ্যাল মিডিয়া থেকে ভালো প্লেস আর একটাও নাই। আপনি যদি একটি এ্যাক্টিভ কমিউনিটি তৈরি করতে পারেন আপনার আশে পাশে তাহলে সোশ্যাল মিডিয়ায় আপনার ব্যপক প্রচার প্রচারনা হওয়া সম্ভব। আপনাকে এমনভাবে একটি কমিউনটি তৈরি করতে হবে যেখানে সকল মেম্বার এ্যাক্টিভ থাকবে। ফেসবুকে কমিউনিটি তৈরি করার জন্য সবচেয়ে বেশি সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। এই জন্য গ্রুপ কিংবা পেজ তৈরি করতে পারেন। এমনি করে টুইটার, গুগল প্লাস কিংবা লিংকেডিনে কমিউনিটি তৈরি করুন। আপনার টার্গেটকৃত ক্রেতাদের সাথে সোশ্যাল মিডিয়াগুলোতে বিভিন্ন আলোচনাতে অংশগ্রহন করতে পারেন। কাউকে ইমেইল পাঠানোর ক্ষেত্রে আপনার সোশ্যাল মিডিয়ার পেজ কিংবা গ্রুপের লিংকগুলো সিগনেচার হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। আপনার নিজের ওয়েবসাইটে কিংবা কোন ব্লগে পোস্ট দেয়ার ক্ষেত্রে সোশ্যাল মিডিয়ার লাইক বাটন যুক্ত করতে পারেন জাতে ব্লগের ট্রাফিককে আপনি সোশ্যাল মিডিয়াতেও খুঁজে পান। কিছু টুলস ব্যবহার করতে পারেন যা আপনার সময়কে সর্বোচ্চ ব্যবহারের মাধ্যমে ভাল ফলাফল বের করতে সাহায্য করবে। নিয়মিত পোস্ট দিতে হবে। সেটা একটা রুটিন অনুযায়ী করলে ভাল হয়ে। যেমন, ৩ দিন পর, ১ সপ্তাহ পর। তাহলে নিয়মিত ভিজিটর আসবে নতুন কিছু পাবার আশায়। তবে নিজে সোশ্যাল মিডিয়াতে মার্কেটিং করে ভালো ফলাফল না পেলে আপনি কোন এক্সপার্ট এর হেল্প নিতে পারেন। এ ব্যাপারে সাহায্যের জন্য দেখুনঃ Social media marketing in Bangladesh

কনটেন্ট মার্কেটিং

অনলাইনে আপনার কনটেন্ট, যেকোন পোস্ট কিংবা ফোরাম ডিসকাশনে যাতে আপনার টার্গেটেড কিওয়ার্ডের উপস্থিতি থাকে যাতে খুব সহজে আপনার টার্গেটেড পাঠক আপনাকে খুঁজে পেতে পারেন। প্রত্যেকদিন নির্দিষ্ট সময় পর পর মাল্টিমিডিয়া কন্টেন্ট গুলোকে আপডেট করা উচিৎ। সোশ্যাল মিডিয়া কন্টেন্ট পোস্ট করা ক্ষেত্রে অটোমেটিক প্রক্রিয়া ব্যবহার করা উচিৎ। আপনি বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের জন্য আপনার বিষয়বস্তু কাস্টমাইজ করতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, মোবাইল ফোনের জন্য বিষয়বস্তু সহজ এবং সংক্ষিপ্ত হতে হবে। মনে রাখবেন, একটি কার্যকর কৌশল আপনার পাঠকদের জন্য তৈরি করবেন এবং তারা আপনার কাছ থেকে আরো তথ্য জানতে আগ্রহী হবে। একটি ভাল কন্টেন্ট ভাগ করা এবং আপনার ব্যবসা ব্র্যান্ডিং জন্য সবচেয়ে ভাল উপায়। আরও জানুনঃ এই পোষ্টটি দেখুনঃ Content marketing in Bangladesh 

ভিডিও প্রোডাকশন এন্ড মার্কেটিং

বলা হয়ে থাকে যে মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে শব্দ থেকে ছবি বেশি মূল্যবান। কিন্তু আমরা বলি ছবি থেকে বেশি ভিডিও অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। যেকোনো পণ্য বা সেবার প্রচারের জন্য ভিডিও মার্কেটিং এর সাহায্যে অতি দ্রুত গ্রাহকের নজর আকর্ষণ করা সম্ভব। অনেকেই ভাবেন ভিডিও ব্যবহার করে কোনো পণ্য বিপণন করাকেই সাধারণত বলা হয় ভিডিও মার্কেটিং। কিন্তু বাস্তবিক অর্থে এর আওতা অত্যন্ত ব্যপক। বাংলাদেশে বর্তমানে ভিডিও মার্কেটিং এর ফিল্ডে প্রতিযোগীতা তুলনামূলকভাবে বেড়েই চলেছে। এই অবস্থায় ভালো করার জন্য আপনার অবশ্যই একজন এক্সপার্ট এর সাহায্য প্রয়োজন। সেরা ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি- রেডমেরুন রয়েছে আপনার পাশে। আমরা আপনার জন্য ভিডিও মার্কেটিং এর সেরা আউটকাম নিশ্চিত করতে সক্ষম। ভিডিও মার্কেটিং করে সেরা ফলাফল পাওয়ার জন্য যোগাযোগ করুনঃ Video Marketing Agency in Bangladesh

ক্রিয়েটিভ মার্কেটিং ক্যাম্পেইন

পেইড এডভার্টাইজিং ক্যাম্পেইন এর অনেক ধরন রয়েছে। সোশ্যাল মিডিয়াতে পেইড এড প্রদান, সার্চ ইঞ্জিনে এড প্রদান থেকে শুরু করে বিভিন্ন ওয়েবসাইটে নানান ফরম্যাটে এড দেওয়ার প্রক্রিয়া পেইড এডভার্টাইজিং এর আওতাও পরে। সার্চ ইঞ্জিন মার্কেটিং বা SEM এটি ব্যাপক মার্কেটিং কৌশল যা প্রাথমিকভাবে দেওয়া প্রচেষ্টার মাধ্যমে আপনার ব্যবসা ট্রাফিক ড্রাইভ হয়। তাকে আমরা Paid সার্চ মার্কেটিং বলে থাকি। আপনার ব্যবসার গঠনশৈলীর উপর ভিত্তি করে সাধারনত এ ধরনের মার্কেটিং করা হয়। এক্ষেত্রে কোন PPC (পে-পার-ক্লিক করুন) অথবা সিপিসি (খরচ প্রতি ক্লিকে) মডেল বা সিপিএম (খরচ প্রতি হাজার ইমপ্রেশন) মডেল নির্বাচন করতে পারবেন। এসইএম সাধারনত বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মের হয়ে থাকে। যেমন-গুগুলের AdWords এবং বিং বিজ্ঞপ্তি (গুগল নেটওয়ার্কে), ইয়াহু বিং নেটওয়ার্ক সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। এছাড়াও এসইএম বিজ্ঞাপন অনুসন্ধান, মোবাইল মার্কেটিং, পুনঃবাজারজাতকরণের এর ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। SEM বর্তমান অনলাইন মার্কেটিং এর সব চেয়ে সাশ্রয়ী অনলাইন মার্কেটিং যা কিনা আপনার রিটার্ন অন ইনভেস্টমেন্ট বাড়াতে পারে

সাধারন অনলাইন মার্কেটিং অনেকটা আবার আপনার SEM ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটি উপসেট মার্কেটিং ব্যবস্থা। সম্ভাব্য শ্রোতাদের লক্ষ্য করে ডিসপ্লে বিজ্ঞাপন ফরম্যাটের বিভিন্ন টুল ব্যবহার করতে পারেন- এটি টেক্সট, ইমেজ, ব্যানার, সমৃদ্ধ মিডিয়া, ইন্টারেক্টিভ বা ভিডিও বিজ্ঞাপন হতে পারে। আপনার আগ্রহ, বিষয়বস্তু বিষয় বা ক্রয় চক্রের গ্রাহকের অবস্থানের উপর ভিত্তি করে আপনার বার্তা কাস্টমাইজ করতে পারেন। তবে মনে রাখবেন, ডিজিটাল ডিসপ্লে বিজ্ঞাপন তুলনামূলকভাবে ব্যয়বহুল। আপনি আপনার ব্যবসার জন্য ভাল ROI চালনা করলে বিশেষজ্ঞদের মতামতের প্রয়োজন হতে পারে। আমি আপনাদের একজন বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়ার জন্য রিকমেন্ট করতে পারিঃ Creative marketing campaign in Bangladesh

ইমেইল, এসএমএস মার্কেটিং

একটা সময় পর্যন্ত ইমেইল মার্কেটিং ছিল সবচেয়ে জনপ্রিয় ডিজিটাল মার্কেটিং প্ল্যাটফর্ম। কিন্তু বর্তমান সময়ে অধিকাংশ মানুষ একাধিক মেইল আইডি খোলার ফলে, ইমেইল মার্কেটিং এর কার্যকারিতা কিছুটা কমেছে। এর জনপ্রিয়তা কিছুটা কমে গেছে।  তারপরও কম খরচে যেকোনো মেসেজ খুব সহজে ক্রেতার নিকট পৌঁছানো যায় বলে ইমেইল মার্কেটিং এর গুরুত্ব বজায় রয়েছে। এর পাশাপাশি বর্তমান সময়ে এসএমএস মার্কেটিংও ব্যপক জনপ্রিয় হয়ে উঠেছে। যখন আমি আমার বার্তা গ্রাহকদের কাছে ইমেইলের মাধ্যমে পোঁছাবো তখন তাকে আমরা ইমেইল মার্কেটিং বলব। একটি কার্যকর ইমেইল মার্কেটিং সফটওয়্যার দিয়ে আপনার ই-মেইল লিস্ট গ্রাহকদের পছন্দ এবং অপছন্দ এবং খরচ অভ্যাস সহ বিভিন্ন কারণের উপর ভিত্তি করে আলাদা করে বজায় রাখতে পারেন। ইমেইল মার্কেটিং হচ্ছে একটি অনলাইন মার্কেটিং পদ্ধতি যার মাধ্যমে আপনি আপনার পন্যের এবং সেবার প্রচার করতে করতে পারবেন এবং আপনার সাইটের প্রচার করতে পারবেন। বর্তমানে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের ছোট বড় অসংখ্য প্রতিষ্ঠান এই পদ্ধতির মাধ্যমে তাদের আয় বৃদ্ধি করছে। ইমেইল মার্কেটিং হল আপনার ক্রেতাদের কাছে আপনার পণ্যের তথ্য পৌছানোর সবচাইতে কাযকরী পদ্ধতি। ইমেইল মার্কেটিং এর ক্ষেত্রে আপনার যা ভাবতে হবে- বিভিন্ন দেশের বিভিন্ন বয়সের কিংবা বিভিন্ন ক্যাটাগরির মানুষের মেইল এড্রেস জোগাড় করুন, যে পণ্যের মার্কেটিং করতে চান, সেটি নিয়ে ভালভাবে গবেষণা করুন, অন্য কোম্পানীর একই পণ্যকে নিয়ে ও তাদের মার্কেটিং কৌশল নিয়ে গবেষণা করুন, সবচাইতে সহজভাবে আপনার পণ্যের গুণ বর্ণনা করুন আপনার মেইলে। ইমেইল মার্কেটিং এর জন্য প্রয়োজন একটি ওয়েবসাইট, মার্কেটিং টুলস এবং পন্য বা সেবা। ইমেইল মার্কেটিং এর মাধ্যমে মুহূর্তেই আপনি আপনার পণ্য এবং সেবা কে হাজার হাজার গ্রাহকের কাছে তুলে ধরতে পরবেন এবং এতে করে আপনার পন্যটি জনপ্রিয় হতে থাকবে। ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে আপনার পণ্য অধিক পরিমানে বিক্রি হতে থাকবে । তাই ইমেইল মার্কেটিং  এ সেরা প্রযুক্তির ব্যবহার দরকার। আমরা আপনাকে দিতে পারি সেরা প্রযুক্তির সন্ধান।

ওয়েব এবং অ্যাপ ডিজাইন

ডিজিটাল মার্কেটিং করার আগে আপনাকে অবশ্যই ডিজিটাল জগতে প্রবেশ করতে হবে। রেডমেরুন বাংলাদেশের একটি সেরা ওয়েবসাইট ডিজাইন ও ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি। এখানে ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন, ই-কমার্স সলিউশন, ওয়েব ডোমেইন-হোস্টিং ইত্যাদি সার্ভিস প্রদান করা হয়। রেডমেরুন এর ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভলপাররা পিএইচপি, পিএইচপি ফ্রেমওয়ার্ক, সিএমএস জুমলা, ওয়ার্ডপ্রেস, ই-কমার্স ইত্যাদিতে ইন্ড্রাস্ট্রির সেরা। এখানে ডেভেলপাররা সব সময় চেষ্টা করে সবার থেকে ভিন্ন কিছু কাজ করতে যা সকলকে আকৃষ্ট করে এবং সব দিক থেকে ইউনিক হয়। আপনার কোম্পানির বা ব্যক্তিগত ওয়েবসাইট তৈরির ব্যাপারে নিশ্চিন্তে তাদের উপর ভরসা করতে পারেন। ওরা আপনাকে সেরা সাপোর্ট  ও সার্ভিস প্রদানে বদ্ধ পরিকর। রেডমেরুন এর সাথে যোগাযোগ করুনঃ Best web design company in Bangladesh

ওয়েব এনালিটিক্স

বাংলাদেশে এমন অনেকেই আছে যারা ডিজিটাল মার্কেটিং পেশায় জড়িত, কিন্তু ওয়েব এনালিটিক্স সম্পর্কে ভালো জ্ঞান নেই। অথচ ওয়েব এনালিটিক্স এ দক্ষতা আপনার জন্য খুলে দিতে পারে অসীম সম্ভাবনার দুয়ার। বিশেষ করে গুগল এনালিটিক্স এর কথা আলাদা করে বলতে হয়। আপনার ওয়েবসাইটটি যদি গুগল এনালিটিক্স এর সাথে ইন্ট্রিগেট করে নিতে পারেন তাহলে আপনার সাইটে কারা ভিজিট করছে, কখন ভিজিট করছেন, কতক্ষন থাকছে, কোন পেইজ গুলা বেশি ভিজিট করছে তা আপনি একদম লাইভ দেখতে পারবেন। ফলে কোন বিষয়গুলোতে আপনার ভিজিটরদের আগ্রহ বেশি আর কোন বিষয়গুলো আগ্রহ সৃষ্টি করতে পারছে না তা সম্পর্কে আইডিয়া পাবেন এবং সংশোধন ব্যবস্থা নিয়ে সামনে ভিজিটর আরও বাড়াতে পারবেন।

আপনার ডিজিটাল মার্কেটিং এর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ দিক ওয়েব Analytics। মূলত, ওয়েব এনালিটিক্স সংগ্রহ করা, পরিমাপ, বুঝতে, বিশ্লেষণ, পরিকল্পনা, রিপোর্ট করা এবং আপনার ব্যবসার জন্য ওয়েব কার্যক্রম ভবিষ্যদ্বাণী করতে আপনাকে সাহায্য করবে। ওয়েব এনালিটিক্স ওয়েব পরিসংখ্যান সঙ্গে গুলিয়ে ফেলা উচিত নয়। কিছু গুরুত্বপূর্ণ ওয়েব এনালিটিক্স হচ্ছে গুগল এনালিটিক্স, স্প্রিং মেট্রিক্স, অপেরা, প্রিন্ট। এটা বলার অপেক্ষা রাখে না যে প্রত্যেক বিজ্ঞাপনদাতা তার ব্যবসা বুঝতে ওয়েব এনালিটিক্স ব্যবহার করা হয়।

শেষ কথাঃ

ডিজিটাল মার্কেটিং যতটা সহজ বলে অনেকেই মনে করেন, ততটা সহজ আসলে নয়! ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে সেরা ফলাফল পাওয়ার জন্য একজন এক্সপার্ট বা একটা ভালো এজেন্সির সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। বাংলাদেশে বেশ কিছু ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি বর্তমানে কাজ করা শুরু করেছে। সামনে আরও কিছু এজেন্সি আসার সম্ভাবনা রয়েছে। আপনি তাদের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন যেকোনো ডিজিটাল মার্কেটিং রিলেটেড হেল্প পাওয়ার জন্য। ডিজিটাল মার্কেটিং এজেন্সি গুলো কি ধরণের সার্ভিস দেয় তা জানার জন্য দেখুনঃ Digital Marketing Agency in Bangladesh.

আশাকরি পোষ্টটি আপনাদের উপরকার করতে পেরেছে।