**ব্লগে হারানো ভিজিটর ফেরত আনার টিপস**

টিউন করেছেন konok1a | January 14, 2014 03:11 | পোস্টটি 406 বার দেখা হয়েছে

**ব্লগে  হারানো ভিজিটর  ফেরত আনার টিপস**


ব্লগে  হারানো ভিজিটর  ফেরত আনার টিপস

যেকোন ওয়েব সাইট ব্লগের উদ্দেশ্য হচ্ছে কাংথিত ভিজিটর কে আকৃষ্ট কারা।যারা এসইও নিয়ে কাজ করে তাদের উদ্দেশ্য থাকে একটি ওয়েব সাইটে  কিভাবে বেশী বেশী ভিজিটর আনা যায়।অনেক চেষ্টার পরও অনেক সময় সাইটে নিদৃষ্ট পরিমান ট্রাফিক আনতে ব্যর্থ হয়।এর জন্য অনেক সময় কয়েকটি বিষয় খেয়াল করা হয় না।আজকে আমি এইরকম কয়েকটি ভুল বা টিপস আপনাদের সাথে শেয়ার করব।

Permalink change:

পার্মালিন্ক হচ্ছে কোন একটি ব্লগ বা সাইটে একটি পোস্ট প্রকাশিত হওয়ার পর একটি লিন্ক যেটির মাধ্যমে ঐ পোষ্টটিতে সরাসরি ভিজিট করা যায়।কোন সাইটে আর্টিকেল প্রকাশ করার শুরু থেকে একটি সুন্দর নিয়মে পার্মালিন্ক ব্যবহার করতে হবে যাতে এটা এস ই ও ফ্রেন্ডলি হয়।যদি কোন কারনে এই পার্মালিন্ক পরিবর্তন হয়ে যায় তাহলে আপনার সাইটের বর্তমান ভিজিটর এর পরিমান কমে যাবে কারন ঐ লিন্কে গিয়ে ভিজিটর কাংখিত আর্টিকেলটি পাবে না।এর থেকে মুক্তির জন্য বিভিন্ন্ প্লাগিন’স ব্যবহার করতে পারেন।প্লাগিন ব্যবহার করে আপনার লিন্কগুলোকে রিডাইরেক্ট করতে পারবেন।আর একাজ করার পর pinging করলে ভালো হবে।

 seo

 

Sitemap:

সার্চ ইজ্ঞিনে যদি আপনার সাইটটি ইন্ডেক্সিং করা না থাকে আপনার সাইটটি গুগলে ভালো স্থান পাবে না।এজন্য অবশ্যই আপনার সাইটটিকে ইন্ডেক্সিং করবেন।এজন্য কিছু প্লাগিন’স ব্যবহার করতে পারন।এটির ফলে সার্চ ইজ্ঞিন সহজেই আপনার সাইটটিকে টপে নিয়ে আসবে।যদি কো

 

.htaccess :

.htaccess এইচটিএক্সেস ফাইলের মাধ্যমে আপনার ব্লগের কোন বড় লিন্ককে  ছোট ও মনেরাখার মত করে প্রকাশ করা যায় । এই ফাইলটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।তাই খুব সাবধানে ও সতর্কতার সাথে কাজটি করতে হবে।এই ফাইলটির ভুল ব্যবহারের কারণে  আপনার সাইট যেকোন সময় ডাউন হয়ে যেতে পারে।

Robot.txt:

রোবট.টেক্সট এসইও এর জন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর।  সার্চ ইঞ্জিন যখন ক্রলিং করে তখন এই ফাইলটিই নির্ধারণ করে সার্চ ইঞ্জিন কোন পোস্ট বা পেজ ইনডেক্স এবং ক্রল করবে। তাই আপনার সাইটকে সার্চ ইঞ্জিনে ভালো অবস্থানে রাখতে অবশ্যই রোবট.টেক্সট ফাইলকে ভালোভাবে অপটিমাইজ করবেন। গুবুত্বপূর্ণ কোন ফাইলকে অবশ্যই ডিজঅ্যালাউ করে রাখবেন না।

 

Artile :

আমরা সারদিন ভরে যতই এসইও করি না, কেন ব্লগে যদি মানসম্পন্ন্ আর্টিকেল না থাকে তাহলে আপনার সাইট কখনোই ভিজিটরকে আকৃষ্ট করবে না।এজন্য ব্লগে সবার আগে মানসম্পন্ন, এসগেজিং আর্টিকেল বসান।তাহলে দেখবেন ভিজিটর এর কমতি হবে না।

Theme customization:

থিম কাষ্টমাইজেশন এর ক্ষেত্রে খেয়াল রাখতে হবে ,ফ্রি থিমে সব প্লাগিনস সাপোর্ট করে না। থিমের যেকোন পরিবর্তন করতে হলে,অবশ্যই আগে ব্যাবআপ নিয়ে রাখবেন যাতে পুনরায় ব্যবহার করা যায়।

 

 

 

 

 

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগইন:

আমরা অনেক সময় অতিরিক্ত প্লাগইনস ইনস্টল করে রাখি।এটা ঠিক নয়।অবশ্যই প্রয়োজনীয় প্লাগইন ছাড়া অহেতুক কোনো প্লাগইন ব্যবহার বা ইনস্টল করে রাখবেন না। অনেক সময় অনাকাংখিত প্লাগইন বা প্লাগইনের ব্যবহার বেশি হলে সাউটের লোডিং টাইম বেশি হয়ে যায়। যা ভিজিটর হারানোর ক্ষেত্রে প্রভাব ফেলে। তাই কোনো প্লাগইন ব্যবহারের ক্ষেত্রে অবশ্যই এটির রিভিউ পড়ে নিবেন এবং এটি আপনার সাইটে সাপোর্ট করবে কিনা সেটি পরীক্ষা করে নিবেন।

 

টাইটেল ট্যাগ ও মেটা ডেসক্রিপশন:

আপনার সাইটের জন্য অবশ্যই কিওয়ার্ডের সাথে মিল রেখে পেজ টাইটেল ট্যাগ ও মেটা ডিসক্রিপশন ব্যবহার করবেন।কারণ সার্চ ইঞ্জিন ক্রল করার সময় এই দুটি জিনিসের উপর বেশী গুরুত্ব দেয়।

কোন একটি ওয়েবসাইটের কোন পেজে কি ধরনের তথ্য আছে তার একটি সারমর্ম প্রকাশকে মেটা ট্যাগ ডিসিক্রিপশ।এসইও নিয়ে যারা কাজ করছেন বা করতে চাচ্ছেন তারা হয়ত মেটা ট্যাগ ডিসিক্রিপশন এর নাম শুনেছেন।কোন একটি ওয়েবসাইটের প্রতিটা পেজে একই রকম মেটা ট্যাগ ডিসিক্রিপশন ব্যাবহার না করে প্রতিটা ওয়েবপেজে আলাদা আলাদা মেটা ট্যাগ ডিসিক্রিপশন ব্যাবহার করতে পারলে আপনার ওয়েবসাইটের রেন্কিং এবং ভিজিটর বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে।

Theme change:
অনেকেই কারণে অকারণে থিম পরিবর্তণ করেন। আপনার সাইটের বিষয়বস্তুর সাথে মানানসই একটি ফ্রি অথবা প্রিমিয়াম থিম যেমন জেনেসিস বা থিসিস থিম ব্যবহার করতে পারেন। ফ্রি থিম বা প্রিমিয়াম থিম নিয়ে বিতর্কে যেতে চাই না, তবে প্রিমিয়াম থিমে অনেক ধরণের অ্যাডভ্যান্টেজ বা বাড়তি ফিচার থাকে। ইনস্টল করার আগেই থিমটিতে কোনো ক্ষতিকর ফাইল বা স্পাইওয়ার, ভাইরাস, স্প্যাম ফাইল না থাকে সেটি পরীক্ষা করে নিবেন।

 

blog security:

ফ্রি থিম ব্যবহার করলে  স্প্যাম ফাইল  থাকতে পারে,তাই  সেটি পরীক্ষা করে নিবেন। কারণ অনেক ক্ষেত্রে এ ধরণের ফাইল আপনার সাইটের ভিজিটরদেরকে অন্য সাইটে রিডাইরেক্ট করে দিতে পারে। তাই আপনার সাইটের সিকিউরিটির বিষয়ে অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে।

 

Seo plugins:

যখন তখন আপনার সাইটের জন্য যে এসইও প্লাগইন ব্যবহার করছেন তা পরিবর্তণ করতে যাবেন না। যদি আপনি আরো ভালো প্লাগইন বা প্লাগইনের পরিবর্তে ভালো পেইড থিম ব্যবহার করতে চান সেক্ষেত্রে অবশ্যই নিশ্চিত থাকবেন যে আপনার এসইও টাইটেল ও মেটা ডেসক্রিপশন যেনো একই থাকে। কারণ এটির পরিবর্তণ হলে আপনার সাইটের ট্রাফিকের ক্ষেত্রে বিরুপ প্রভাব ফেলবে।

 

Blog backup:

যেকোন সময় আপনার সাইটটি হ্যক অথবা ভাইরাস দ্বারা ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে।সেক্ষেত্রে আপনার সাইটটি ডাউন হয়ে যেতে পারে ।তাই এ সমস্যা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য আপনার সাইটটির নিয়মিত ব্যাকআপ নিয়ে রাখবেন যাতে বিপদের সময়  এটিকে আবার ব্যবহার করা যায়। সি প্যানেল থেকে সহজেই এই ব্যাকআপের কাজটি কেরতে পারবেন।